চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সোহানের সমর্থন পেয়ে চাপমুক্ত ছিলেন আফিফ

কঠিন সময়ে ব্যাট করতে নেমে হাল ধরেছেন। বাংলাদেশকে জিতিয়ে ছেড়েছেন মাঠ। উইনিং শটে মেরেছেন অসাধারণ এক বাউন্ডারি। ৩৭ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলা আফিফ হোসেন ধ্রুব হয়েছেন ম্যাচসেরা। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দ্বিতীয় টি-টুয়েন্টিতে জয়ের অন্যতম নায়ক ম্যাচশেষে জানালেন, আরেক প্রান্ত থেকে পাওয়া সমর্থনে কঠিন কাজটা সহজ হয়ে গেছে।

‘মাঠে নামার সময় রিয়াদ ভাইয়ের থেকে একটিই ম্যাসেজ ছিল, যাওয়ার পর যেন দুই-তিন ওভার নরমাল খেলি। আমার পরিকল্পনা ছিল যেন যেন শেষ পর্যন্ত উইকেটে থাকতে পারি এবং ম্যাচটা শেষ করে আসতে পারি।’

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

‘ব্যাটিংয়ে নামার পর চেষ্টা করেছি উইকেট অ্যাসেস করার। উইকেটের আচরণ কেমন, সেটা খেয়াল রেখে যেন উইকেট না দিয়ে থাকতে পারি (ক্রিজে), শেষ পর্যন্ত যদি খেলতে পারি, বিশ্বাস ছিল যে প্রয়োজনীয় রেটই থাকুক না কেনো, ভালোভাবে শেষ করতে পারব।’

বিজ্ঞাপন

‘সোহান ভাই খুবই ভালো ব্যাট করেছে। দুজনের পরিকল্পনা ছিল যে উইকেট দেবো না। বল-টু-বল রান দরকার ছিল তখন। উইকেট না দিয়ে রান কীভাবে করা যায়, সেই চেষ্টা করছিলাম। অপর পাশ থেকে ভালো সমর্থন পাওয়ায় আমরা কোনো চাপ অনুভব করিনি।’

১২২ রানের লক্ষ্য কঠিন হয়ে উঠেছিল ইনিংসের মাঝে দ্রুত কয়েকটি উইকেট হারানোয়। সেখান থেকে জয়ের সুযোগ হাতছাড়া হতে দেননি আফিফ ও নুরুল হাসান সোহান। ষষ্ঠ উইকেটে দুজনের ৫৬ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটিতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় টি-টুয়েন্টিতে এনে দিয়েছেন ৫ উইকেটের জয়।

আফিফ ৩৭ ও সোহান ২১ রানে অপরাজিত থেকে ৮ বল আগেই খেলা শেষ করে আসেন।

টানা দুই ম্যাচে অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে সিরিজ জয়ের হাতছানি বাংলাদেশের সামনে। পাঁচ ম্যাচ সিরিজের তৃতীয় টি-টুয়েন্টি আগামী শুক্রবার। সামনের তিন ম্যাচে একটি জয় এলেই সিরিজ নিজেদের করে নেবে টাইগাররা।