চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘সেরা’ হয়েও স্টোকসের মতো মর্যাদা পান না হোল্ডার

নিজে ১৮ মাস ধরে টেস্টের সেরা অলরাউন্ডার, কিন্তু তিনি যে সেরা তা বলতে গেলে অধিকাংশরই অজানা! অথচ যিনি ঠিক তার পরে, দুইয়ে, সেই বেন স্টোকসকে ঘিরে বিশ্বের মাতামাতি যে মনে কষ্ট দেয় সেটা আর গোপন রাখতে পারেননি জেসন হোল্ডার। ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক নিজ মুখেই বলেছেন, সেরার মর্যাদাটুকু তাকে একেবারেই দেয়া হয় না!

সাউদাম্পটনে ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচ দিয়ে ১১৭ দিন পর মাঠে ফিরছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। দর্শকশূন্যভাবে হলেও কৃত্রিম আবহ তৈরি করে দর্শকহীনতার কথা ভুলিয়ে দেয়ার চেষ্টা করা হবে। অন্যদিকে খেলোয়াড়রাও চেষ্টা করছেন নিজেদের নিজেরাই তাতিয়ে দেয়ার। তার প্রথমটা শুরু হল হোল্ডারের হাত ধরে।

বিজ্ঞাপন

হোল্ডার অবশ্য প্রতিপক্ষকে কোনো খোঁচা দেননি। শুধু আক্ষেপ করেছেন নিজেকে নিয়ে, ‘ব্যক্তিগতভাবে নিজের কিংবা আইসিসির অর্জন নিয়ে কথা বলতে পছন্দ করি না। বেনকে নিয়ে সবসময় কথা বলা হয় এবং সে যোগ্য বলেই। কিন্তু আইসিসি র‍্যাঙ্কিং বলছে আমি বিশ্বের ১ নাম্বার অলরাউন্ডার। কিন্তু যে মর্যাদা আমার পাওয়ার কথা তা কী পাচ্ছি? কে জানে!’

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

‘সত্যি বলতে এ নিয়ে মন খারাপ করি না। সাংবাদিকরা আছেন, তারা এ নিয়ে লিখবেন। এখানে এসেছি খেলতে। যখন মাঠে স্টোকসের মতো প্রতিপক্ষ থাকে, ক্রিকেটজুড়ে তখন লড়াইটা দারুণ জমে।’

পরিসংখ্যানও বলছে স্টোকসকে পেলে জ্বলে ওঠেন হোল্ডার। শেষবার যখন দুজনে মুখোমুখি হয়েছিলেন, জয়ের হাসি হেসেছিলেন হোল্ডারই। ক্যারিবীয় অধিনায়কের ডাবল সেঞ্চুরিতে ব্রিজটাউন টেস্ট জিতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ২-১এ উইজডেন ট্রফি ঘরে তোলে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ব্যাট হাতে ৩৭.২০ গড়ে রান ও ২২.৮০ গড়ে বোলিংয়ে দুর্দান্ত ছিলেন হোল্ডার।

এবারতো স্টোকস নিজে হোল্ডারের সরাসরি প্রতিপক্ষও। নিয়মিত অধিনায়ক জো রুট সন্তান জন্মের সময় স্ত্রীর পাশে থাকায় প্রথম টেস্টে খেলতে পারছেন না। দল সামলাবেন সহ-অধিনায়ক স্টোকস। ইংল্যান্ডের দায়িত্ব যোগ্য নেতার হাতেই পড়েছে বলে মত হোল্ডারের।

‘সিরিজ শেষে আমি স্টোকসকে পরামর্শ দেব। ইংল্যান্ড যোগ্য লোকের হাতেই পড়েছে। একজন যোগ্য প্রতিদ্বন্দ্বী এবং আমি নিশ্চিত ড্রেসিংরুমের সবাই তার কথা মনোযোগ দিয়ে শুনবে। সে অভিজ্ঞ। এক ম্যাচের জন্য অধিনায়ক হলেও তাকে শুভ কামনা জানাচ্ছি।’