চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সেনা অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে জনগনকে রাস্তায় নামার আহ্বান অং সান সুচির

মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থানের প্রতিবাদে জনগনকে রাস্তায় নামার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন অং সান সুচি। অং সান সুচির দল এনএলডি তাদের ফেসবুকে এক বিবৃতিতে সামরিক অভ্যুত্থান প্রত্যাখ্যান করে প্রতিবাদের ডাক দিয়েছে।

রয়টার্স জানায়, সামরিক জান্তাদের হাতে বন্দী নেত্রীর পক্ষে এই বিবৃতি দেয়া হয়েছে। নভেম্বরের নির্বাচনের আগে প্রচারণার জন্য যে ফেসবুক একাউন্ট তারা ব্যবহার করতো সেখানেই বিবৃতিটি পোস্ট করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিবৃতিতে বলা হয়, সেনাবাহিনীর এই ভূমিকা দেশকে একনায়কতন্ত্রে ফিরিয়ে নিয়ে যাবে। জনগণকে আমি অনুরোধ জানাচ্ছি, তারা যেন এটা মেনে না নেয়। তারা যেন সেনাবাহিনীর এই অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে।

বিবৃতিটির নিচে অং সান সুচির নাম থাকলেও তার কোনো স্বাক্ষর ছিলো না। তবে সেখানে এনএলডির চেয়ারম্যান উইন টিনের হাতে লেখা একটি নোট দেখা গেছে। যেখানে তিনি বলেছেন, এই বিবৃতি সুচির ইচ্ছার প্রতিফলন এবং এ নিয়ে সন্দেহের কোনো অবকাশ নেই।

বিজ্ঞাপন

তিনি আরও লিখেন, আমি কসম করে বলছি, অং সান সুচি নিজে জনগণের প্রতি এই আহ্বান জানিয়েছেন।

সোমবার সামরিক অভ্যুত্থান ঘটেছে মিয়ানমারে। দেশটি এখন পুরোপুরি সেনা নিয়ন্ত্রণে। ক্ষমতাসীন দলের প্রধান অং সান সু চি এবং অন্যান্য নেতাদের আটকের পর এই তথ্য নিশ্চিত করেছে সেনাবাহিনী।

সেখানকার বেসামরিক সরকার ও সেনাবাহিনীর মধ্যে নির্বাচন নিয়ে বিরোধ তৈরির পরই এই ঘটনা ঘটেছে।

আটকের ঘটনার কয়েক ঘণ্টা পরে সেনাবাহিনীর টেলিভিশন নিশ্চিত করেছে, তারা এক বছরের জন্য রাষ্ট্রীয় জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছে।

এর আগে ২০১১ সাল পর্যন্ত সেনাবাহিনীর নিয়ন্ত্রণে ছিল মিয়ানমার। গত নভেম্বরের নির্বাচনে সু চির ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসি (এনএলডি) সরকার গঠন করার জন্য যথেষ্ট আসন লাভ করে। কিন্তু সেনাবাহিনীর দাবি ওই নির্বাচনে জালিয়াতি হয়েছে।