চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সুয়ারেজের কীর্তির দিনে বার্সার ত্রাতা সেই মেসি

লুইস সুয়ারেজ ও লিওনেল মেসির শেষ মুহূর্তের গোলে ঘরের মাঠে পয়েন্ট ভাগের আতঙ্ক থেকে রক্ষা পেয়েছে বার্সোলেনা। একসময় ড্র’য়ের আশঙ্কায় ক্ষণগোনা বার্সা শেষ পর্যন্ত ন্যু ক্যাম্পে ৩-১ গোলে হারায় লেগানেসকে।

ম্যাচের প্রথমার্ধে উসমান ডেম্বেলের গোলে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। দ্বিতীয়ার্ধের খেলা খুব বেশি গড়াতে না গড়াতেই লেগানেসের হয়ে গোল শোধ করেন ব্র্যাথওয়েট। শেষবেলায় সুয়ারেজ ও বদলি হিসাবে মাঠে নামা মেসির গোলে জয় নিশ্চিত হয়। লেগানেসকে হারানোর ফলে লা লিগার পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থান আরও কিছুদিনের জন্য নিরাপদ করল কাতালান জায়ান্টরা।

বিজ্ঞাপন

বার্সা কোচ আর্নেস্টো ভালভার্দের এই ম্যাচের প্রথম একাদশে রাখেননি মেসি, ভিদাল, রাকিটিচদের। ডেম্বেলের সঙ্গে ম্যাচ শুরু করান সুয়ারেজ-কৌতিনহো জুটিকে দিয়ে। ৩২ মিনিটে জর্ডি আলবার পাস থেকে ডেম্বেলে গোল পেয়ে যাওয়ায় ভালভার্দের স্ট্র্যাটেজি সফল মনে হচ্ছিল। তবে দ্বিতীয়ার্ধে ছবিটা বদলে যায় লেগানেস গোল শোধ করে দেয়ায়।

বিজ্ঞাপন

৫৭ মিনিটে এন নেসিরির পাস থেকে ব্র্যাথওয়েট বার্সেলোনার জালে বল জড়িয়ে দেন। ৬৪ মিনিটে জোড়া ফুটবলার পরিবর্তনে মেসি-রাকিটিচকে মাঠে নামায় বার্সা। মেসি মাঠে নামতেই বার্সার আক্রমণ জোর পায়। ৭১ মিনিটে মেসির শট লেগনেস গোলকিপারের হাতে প্রতিহত হলে সুয়ারেজ ফিরতি বল জালে পাঠান।

এই গোলের সঙ্গে সঙ্গেই উরুগুয়ে তারকা বার্সেলোনার সর্বকালীন সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিয়ার প্রথম পাঁচে ঢুকে পড়েন। বার্সেলোনার হয়ে সুয়ারেজের এটি ১৬৭তম গোল। ইনজুরি টাইমে (৯০+২) আলবার পাস থেকেই বার্সেলোনার হয়ে ম্যাচে তৃতীয় গোলটি করেন মেসি।

এই জয়ের ফলে লিগের ২০ ম্যাচে ৪৬ পয়েন্ট বার্সেলোনার। তারা যথারীতি এক নম্বরে রয়েছে। সমসংখ্যক ম্যাচে ৪১ পয়েন্ট সংগ্রহ করে দু’নম্বরে রয়েছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। ২০ ম্যাচে ৩৬ পয়েন্ট নিয়ে রিয়াল রয়েছে তিনে।

Bellow Post-Green View