চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সুশান্তের ১৭ কোটি রুপি গায়েব, সন্দেহের মুখে ‘রাবতা’ প্রযোজক

গেল জুলাই মাসে বলিউডের প্রয়াত অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের রহস্যজনক মৃত্যুর পর তার প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তী বিরুদ্ধে ১৫ কোটি রুপি আত্মসাতের অভিযোগ এনেছিলেন সুশান্তের বাবা কে কে সিং। তবে সম্প্রতি ইডি ( এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের) তদন্তে জানা গেছে, ১৫ কোটি নয়, সুশান্তের অ্যাকাউন্ট থেকে গায়েব ১৭ কোটি রুপি।

ইন্ডিয়া টুডের খবর অনুযায়ী জানা গেছে, এক প্রযোজক প্রায় ১৭ কোটি রুপি সুশান্তকে তার একটি ছবির পারিশ্রমিক হিসাবে দিয়েছিলেন, যা অ্যাকাউন্টে মিলছে না।

বিজ্ঞাপন

ইডির তদন্তে উঠে আসছে, ২০১৭ সালে ‘রাবতা’ ছবির জন্য পারিশ্রমিক হিসাবে এই ১৭ কোটি রুপি পেয়েছিলেন সুশান্ত। সেই ছবির প্রযোজক দীনেশ বিজনকে ইতিমধ্যেই ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। সুশান্তের সঙ্গে আর্থিক লেনদেনের নথিও পেশ করতে বলা হয় তাকে। কিছু বিষয়ের নথি প্রকাশ করলেও সুশান্তের সাথে লেনদেন সংক্রান্ত কোন নথি পেশ করতে পারেননি তিনি। এমনকি হাঙ্গেরিতে ছবির শুটিংয়ের জন্য যে বাজেট তৈরি করে অর্থব্যয় করা হয়, সেই সম্পর্কিত কোনও নথি প্রমাণও পেশ করতে পারেননি তিনি।

এদিকে কোন নথি প্রমাণ পেশ না করতে পারায় গত ১৪ অক্টোবর দীনেশ বিজনের বাড়িতে তল্লাশি চালায় ইডি। সেখান থেকেই বুদাপেস্তের হাঙ্গেরিতে শুটিংয়ের বাজেট এবং খরচ সম্পর্কিত নথি উদ্ধার করে তারা। সেই নথি থেকে জানা যায়, ছবির জন্য মোট বাজেট ছিল ৫০ কোটি টাকা। সেই অর্থ থেকে ১৭ কোটি রুপি সুশান্তকে পারিশ্রমিক হিসাবে দেওয়ার কথাও উল্লেখ করা ছিল সেখানে। যা সুশান্তকে ভারতে এসে প্রদান করেছিলেন বলে দাবি করেছেন দীনেশ বিজনের মুখপাত্র।

বর্তমানে দীনেশ দুবাইতে রয়েছেন। ইডি আবারো তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডেকে পাঠালে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার কারণ দেখিয়ে ভারতে আসেননি তিনি। এ বিষয়ে তাকে একাধিকবার জিজ্ঞাসাবাদ করা হলেও সেগুলোর কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি ওই প্রযোজক। এ ছাড়াও সুশান্তের বিজনেস ম্যানেজার শ্রুতি মোদী এবং উদয় সিংহ গৌরীকেও জিজ্ঞাসাবাদ করে ইডি।