চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সুশান্তের মৃত্যুবার্ষিকী: লাইট, ক্যামেরা, অ্যাকশনের বাইরে এক তারা

বলিউডের প্রতিভাবান অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতকে হারানোর এক বছর হয়ে গেল। বলিউডের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র ছিলেন সুশান্ত সিং রাজপুত। অভিনয়ের পাশাপাশি বিজ্ঞান, মহাকাশ, তারামণ্ডল নিয়ে ছিল তার অগাধ চর্চা। বলিউডের অন্য অভিনেতাদের থেকে তিনি ছিলেন আলাদা।

সুশান্ত একবার এক সাক্ষাত্কারে বলেছিলেন, ‘কোনো নির্দিষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছানো, অর্থ জোগাড় করা বা খ্যাতি অর্জন নয়, আমি কেবল সময় নিয়ে জীবনের যাত্রাটি উপভোগ করতে চাই’।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

অত্যন্ত কঠোর পরিশ্রম ও নিষ্ঠার সাথে নিজের সাফল্যের গল্প রচনা করেছিলেন সুশান্ত। স্বপ্ন দেখে সেটাকে বাস্তবে রূপান্তরিত করার সাহস ছিল তার। দিল্লি টেকনোলজি ইউনিভার্সিটি থেকে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে পড়াশোনা করেছেন তিনি। তিন বছর ক্লাস করার পর অভিনয়ে আগ্রহের কারণে ইঞ্জিনিয়ারিং পড়া শেষ করেননি সুশান্ত। তার আগ্রহ ছিল অ্যাস্ট্রোফিজিক্সে। তিনি পেয়েছিলেন ‘ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল ফিজিক্স অলিম্পিয়াড’ খেতাব। বই পড়তে ভালোবাসতেন। শুটিং-এর অবসরেও বই পড়তেন।

সাত বছরের ক্যারিয়ারে সুশান্ত নিজেকে প্রমাণ করেছেন অনেকবার। ২০১১ সালে মুকেশ ছাবরার পরিচালনায় ‘কাই পো চে’ ছবি দিয়ে বলিউড অভিষেক হয় সুশান্তের। তিনি বলিউডকে উপহার দিয়েছেন ‘পিকে’, ‘এম.এস ধোনি’, ‘কেদারনাথ’, ‘ছিচোড়ে’র মতো অসাধারণ ছবি। তার শেষ ছবি ‘দিল বেচারা’ মুক্তি পাওয়ার আগেই প্রয়াত হয়েছেন অভিনেতা।

২০২০ সালের ১৪ জুন সুশান্ত সিং রাজপুত মারা যান। মুম্বাই পুলিশ অভিনেতার ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করেন তার ফ্ল্যাট থেকে। এই খবরে স্তম্ভিত হয়ে গিয়েছিল পুরো বলিউড। ঠিক কী ঘটেছিল ১৪ জুনের সকালে, সেই রহস্য আজও জানা যায়নি।