চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সুশান্তের ঘটনা খুন হয়ে থাকার সম্ভাবনাই বেশি: পারিবারিক আইনজীবী

যত দিন গড়াচ্ছে, তত জটিল হচ্ছে সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু রহস্য। সুশান্তের পারিবারিক আইনজীবী বিকাশ সিং সোমবার বলেছেন, সুশান্তের ঘটনাটি আত্মহত্যা নয়, খুন হয়ে থাকার সম্ভাবনাই অনেক বেশি।

আইনজীবী বলেন, সুশান্তের ফ্ল্যাটমেট সিদ্ধার্থ পাঠানি ঘটনার পর থেকে সুশান্তের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছিল। সুশান্তের পরিবারকে তিনি বুঝাচ্ছিলেন যে এটা আত্মহত্যা। পরিবারও সেটা বিশ্বাস করা শুরু করেছিল। কিন্তু যখন পাটনায় মামলা দায়ের করা হলো, তখন থেকে রিয়া চক্রবর্তীকে সাহায্য করা শুরু করলেন সিদ্ধার্থ পাঠানি। তখনই সুশান্তের পরিবারের সন্দেহ হয়েছে যে এটা আত্মহত্যা নয়, খুনের ঘটনা হতে পারে।

বিজ্ঞাপন

ময়নাতদন্তের রিপোর্ট নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন আইনজীবী। তিনি বলেন, ‘ময়নাতদন্তের রিপোর্ট অনেকদিন কাউকে দেখানো হয়নি। ফাঁস লাগিয়ে মৃত্যুতে শরীরের ওপর যেই প্রভাব পড়ে, যেমন চোখ বের হয়ে আসা, হাড়ে আঘাত; এসব কিছুই ছিল না রিপোর্টে। এমনকি নখের নমুনাও পরীক্ষা করা হয়েছে বলে মনে হয়না আমার।’

বিজ্ঞাপন

তিনি আরও বলেন, ময়নাতদন্ত করা হয়েছে এমন একটি হাসপাতালে, যেই হাসপাতালের আগে থেকেই বদনাম আছে। অর্থের বিনিময়ে সার্টিফিকেট দেয়ার জন্য সেই হাসপাতাল সুপরিচিত।

আইনজীবী জানান, সুশান্তের শরীরে যে ফাঁসের চিহ্ন পাওয়া গেছে তা খুবই নিখুঁত। সাধারণত বেল্ট দিয়ে ফাঁস দেয়া হলে এরকম চিহ্ন দেখা যায়। তাই তিনি ধারণা করছেন সুশান্তের কুকুরের বেল্ট অথবা অন্য কোনো বেল্ট দিয়ে হত্যাকাণ্ড ঘটানো হয়ে থাকতে পারে।

বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের রহস্যজনক মৃত্যুর দুই মাস পার হয়ে গেছে। কিন্তু তারপরেও কাটছে না তার মৃত্যু রহস্য। সুশান্ত কি আত্মহত্যা করেছিলেন নাকি মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিতে কেউ কলকাঠি নেড়েছে? সে নিয়ে এখনো চলছে তর্ক-বিতর্ক।