চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সুবীর নন্দী, সংগীতের নক্ষত্রের বিদায়

বাংলাদেশের কিংবদন্তী এই সংগীতশিল্পী হবিগঞ্জ জেলার বানিয়াচং থানায় নন্দী পাড়া মহল্লায় এক সংগীত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। বাবা সুধাংশু নন্দী ছিলেন একজন চিকিৎসক ও নিবিড় সংগীতপ্রেমী মা পুতুল রানীও চমৎকার গান গাইতেন।

ছোটবেলা থেকেই তিনি ভাই-বোনদের সঙ্গে শাস্ত্রীয় সঙ্গীতে তালিম নিতে শুরু করেন ওস্তাদ বাবর আলী খানের কাছে। তবে সঙ্গীতে তার হাতেখড়ি মায়ের কাছেই ১৯৬৭ সালে সাত বছর বয়সে। ওই বয়সে তিনি সিলেট বেতারে গান করেন। ১৯৭০ সালে ঢাকা রেডিওতে প্রথম রেকর্ডিংয়ের মধ্য দিয়ে পেশাদার গানের জগতে আসেন।

বিজ্ঞাপন

প্রথম গান ‌‘যদি কেউ ধূপ জ্বেলে দেয়’-এর গীতিকার মোহাম্মদ মুজাক্কের এবং সুরারোপ করেন ওস্তাদ মীর কাসেম। ৪০ বছরের দীর্ঘ ক্যারিয়ারে তিনি গেয়েছেন আড়াই হাজারেরও বেশি গান। চলচ্চিত্রে প্রথম গান করেন ১৯৭৬ সালে আব্দুস সামাদ পরিচালিত সূর্যগ্রহণ ছবিতে। ১৯৮১ সালে তার একক অ্যালবাম ‘সুবীর নন্দীর গান’ বাজারে আসে।

গানের পাশাপাশি তিনি দীর্ঘদিন ব্যাংকে চাকরি করেছেন। চলচ্চিত্রের সঙ্গীতে অবদানের জন্য তিনি পাঁচবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান। সঙ্গীতে অবদানের জন্য একুশে পদকে ভূষিত হন সুবীর নন্দী। গুণী এই শিল্পীর মৃত্যুতে চ্যানেল আই পরিবার গভীরভাবে শোকাহত।

শেয়ার করুন: