চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সুচিই মিয়ানমারে সমস্যা সমাধানে আশার আলো: রিচার্ডসন

বিভিন্ন বিষয়ে মতপার্থক্য ও দ্বন্দ্ব সত্বেও অং সান সুচিকেই মিয়ানমারে সমস্যা সমাধানে সবচেয়ে বড় আশার আলো বলে মন্তব্য করেছেন মার্কিন মধ্যস্থতাকারী বিল রিচার্ডসন। সুচির সঙ্গে বিরোধের কয়েক সপ্তাহ পর একথা বললেন তিনি।

সেই বিরোধের জের ধরে রোহিঙ্গা সমস্যায় সুচিকে উপদেশ দাতা আন্তর্জাতিক প্যানেল থেকেও পদত্যাগ করেছেন রিচার্ডসন।

বিজ্ঞাপন

সুচিকে নিজের দীর্ঘ সময়ের বন্ধু হিসেবেই উল্লেখ করে রিচার্ডসন বলেন, মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে জনসাধারণের এই নেতা অবরোধের মানসিকতা লালন করছেন। কিন্তু পশ্চিমা সরকারগুলোর তার সঙ্গে যুক্ত হওয়ার দরকার হয়ে পড়েছে।

বিল রিচার্ডসন
বিল রিচার্ডসন

রিচার্ডসন বলেন, পশ্চিমের সঙ্গে, মানবাধিকার দলগুলোর সঙ্গে, জাতিসংঘের সঙ্গে এবং আন্তর্জাতিক মিডিয়ার সঙ্গে তার সম্পর্ক ভয়াবহ। আর আমার মনে হয় সুচি স্বেচ্ছায় সেটা নিজের উপর নিয়েছে। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে ক্রমাগত অবজ্ঞা করছে সুচি। সে অনেকটাই আইসোলেটেড হয়ে গেছে। দেশেও খুব একটা ভ্রমণ করে না সে। নিজের চারপাশে একটি ক্ল্যাসিক বুদবুদ তৈরি করেছে এই নেত্রী।

বিজ্ঞাপন

গত বুধবার প্রথমবারের মতো রাখাইন সফরে গিয়ে পরামর্শক বোর্ড থেকে পদত্যাগ করেন রিচার্ডসন। তার মতে সেখানে হোয়াইটওয়াশ চালানো হয়েছে। সু চির অফিস রিচার্ডসনকে তার বক্তব্য থেকে সরে যেতে বলে এবং তার বিরুদ্ধে নিজের এজেন্ডা বাস্তবায়নের অভিযোগ তোলে।

শুক্রবার সুচির সরকার মন্তব্য করে, সুচি ও রিচার্ডসনের মধ্যেকার বিষয়ে বেশি বিস্তারিত বলতে চায় না সুচির সরকার।

মিয়ানমারে জাতিগত নিধনের শিকার হয়ে গত বছরের ২৫ অাগস্ট থেকে বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে অন্তত ১০ লাখ রোহিঙ্গা। গত ২৩ জানুয়ারি রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে পুনর্বাসন শুরু হওয়ার কথা থাকলেও তা হয়নি।

রিচার্ডসন যোগ করেন, এই সংকটের জন্য সেনাবাহিনীর উপর পুরো দোষ দেওয়া যায়। কিন্তু যিনি তাদের অন্যপথে ঘোরাতে পারতেন তিনি একমাত্র অং সান সু চি। অন্তত তার এখনও সেটা করা উচিত।

রিচার্ডসন আরো বলেন, সোমবার রাতের খাবার খাওয়ার সময় মিয়ানমারে আটক দুই রয়টার্স সাংবাদিকের মুক্তি ও সঠিক আইনী প্রক্রিয়ার বিষয়টি আনলে তিনি রাগান্বিত হয়ে যান। গণকবরের বিষয়ে তদন্ত করা উচিত জানালেও তিনি বিমর্ষ হয়ে পড়েন। তাকে রোহিঙ্গাদের ভালো চিকিৎসার কথা বলা হয়। তার প্রতিক্রিয়া দেখে রিচার্ডসনের মনে হয়, তিনি মুক্ত পরামর্শ নিতে চাইছেন না।

Bellow Post-Green View