চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সুইডেনে হৃদরোগে আক্রান্ত ব্যক্তির জীবন বাঁচালো ড্রোন

সুইডেনে হৃদরোগে আক্রান্ত রোগীদের প্রাথমিক চিকিৎসায় জীবন রক্ষাকারী ভূমিকা পালন করছে ড্রোন। কার্ডিয়াক রোগীর হার্টরেট পরিমাপ করে ডাক্তারের কাছে তথ্য পাঠিয়ে যথাযথ প্রাথমিক চিকিৎসা নিশ্চিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে এভারগ্রিন ড্রোন।

সুইডেনে ৭১ বছর বয়সী এক হৃদরোগীর জীবন বাঁচাতে সহায়তা করেছে সয়ংক্রিয় ড্রোন। ট্রলহ্যাটন এলকায় লোকটি তার বাসার সামনে তুষার সরাতে গিয়ে হৃদরোগে আক্রান্ত হন। পরে তার হার্টবিট রেট পরিমাপ করে একজন বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের কাছে পৌঁছে দেয় ড্রোনটি। এতে করে ডাক্তার খুব সহজেই রোগীর চিকিৎসা সেবায় ভূমিকা রাখতে পারে।

ওই ব্যক্তির নাম না প্রকাশের শর্তে বিবিসি’কে জানায়, এটি অনবদ্য একটি সেবা! খুব দ্রুতই ড্রোনটি এসে উপস্থিত হয়েছিল।

ড্রোন নির্মতা প্রতিষ্ঠান এভারড্রোন জানায়, এর মাধ্যমে অ্যাম্বুলেন্স পৌঁছানোর পূর্বেই একজন রোগীর হার্টরেট পরিমাপ করে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা যাবে।

তারা আরও জানায়, এলার্ম বেজে ওঠার পর মাত্র ৩ মিনিট সময়ের মধ্যে অটোমেটেড এক্সার্টানাল ডেফিব্রিল্যাটর (এইডি) বা হার্টরেট পরিমাপ করে পাঠাতে পারে।

বিজ্ঞাপন

রোগীটির বরাতে বিবিসি জানায়, ডিসেম্বরের শুরুর দিকে এই ঘটনাটি ঘটলেও। তিনি সেটি এখন মনে করতে পারেন না। তুষার পরিস্কার করতে গিয়ে হঠাৎ হৃদরোগে আক্রান্ত চারপাশে তিনি অন্ধকার দেখেছিলেন।

পরে তার স্ত্রীর মুখে তিনি শুনতে পেয়েছিলেন, কতটা ভাগ্যবান তিনি!

ডা. মুস্তাফা আলী নামে একজন এ ধরণের একটি ঘটনার সম্মুখীন হয়েছিলেন বলে বিবিসি’কে জানান। তিনি সেদিন গাড়িতে করে তার কর্মস্থল স্থানীয় একটি হাসপাতালের দিকে যাচ্ছিলেন। হঠাৎ গাড়ির জানালায় দেখতে পেলেন একজন লোক তার রাস্তায় লুটিয়ে পড়ে আছেন। তিনি তাকে সাহায্যের জন্য এগিয়ে যান।

ডা. মুস্তাফা বলেন, ওই ব্যক্তির কোন পালস ছিল না। সুতরাং আমি সিপিআর পদ্ধতি অবলম্বন করছিলাম। আরেকজনকে অনুরোধ করেছিলাম ১১২ (সুইডেনের জরুরী পরিসেবা নাম্বার) তে কল করার জন্য। কয়েক মিনিট পরেই মাথার উপরে ডেফিব্রিলেটর (হার্টরেট মাপার যন্ত্র) সহ একটি ড্রোনকে ঘুরতে দেখি আমি।

এভারগ্রিন ড্রোনের চিফ এক্সিকিউটিভ ম্যাটস স্যালসট্রম বিশ্বাস করেন এই প্রযুক্তি রোগীর জীবন বাাঁচাতে দলীয় প্রচেষ্টার গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার হয়ে কাজ করবে।

দেশটির কারোলিনস্কা গবেষকগণ তাদের ৪ মাসের একটি স্টাডিতে দেখেন, ১২ টি কার্ডিয়াক আক্রান্ত কেসের মধ্যে একটি বাদে সবগুলোতেই কার্যকর সেবা প্রদান করতে সক্ষম হয়েছে ড্রোনটি।

বিজ্ঞাপন