চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সিলেট বিভাগে তিন দিনের পরিবহন ধর্মঘট

পাথর কোয়ারি খুলে দেওয়ার দাবিতে মঙ্গলবার সকাল থেকে সিলেট বিভাগে তিন দিনের পরিবহন ধর্মঘট শুরু হয়েছে।

ধর্মঘট সফল করতে সকাল থেকে পরিবহন শ্রমিকরা রাজপথে অবস্থান নিয়েছেন। সকালে তারা দক্ষিণ সুরমার বাইপাস এলাকায় অবরোধ দিলে পুলিশ এসে তাদের সরিয়ে দেয়।

বিজ্ঞাপন

সিলেটে সর্বস্তরের পরিবহন মালিক ও শ্রমিকদের উদ্যোগে এই ধর্মঘট আহবান করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

ধর্মঘট শুরু হলে সিলেট কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল থেকে দুরপাল্লার কোনো যানবাহন ছেড়ে যায়নি কিংবা প্রবেশও করেনি। সিলেটের আন্ত:জেলা সড়কেও কোনো যানবাহন চলছে না। এ কারনে যাত্রীদের মধ্যে চরম ভোগান্তি দেখা দেয়। অনেকেই পায়ে হেটে, রিকশা কিংবা রাইড শেয়ারের মোটরসাইকেলে করে গন্তব্যে পৌছেন।

ধর্মঘট শুরু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে পরিবহন শ্রমিকদের একটি দল নগরীর বাইপাস এলাকায় অবস্থান নেয়। এ সময় জরুরী কাজে চলাচলকারী যানবাহনকে সড়কে চলতে বাধা প্রদান করে। ফলে বাইপাস এলাকায় কয়েকটি যানবাহন আটকা পড়লে সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে দক্ষিন সুরমা থানার ওসি আক্তার হোসেন সেখানে আসেন। তিনি শ্রমিকদের সঙ্গে কথা বলে জরুরী কাজে নিয়োজিত যানবাহন চলার সুযোগ করে দেন।

পুলিশ জানিয়েছে, রাস্তায় যানবাহন চলাচলে জোরপূর্বক বাধা প্রদান করলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। শবে- তিন দিনের ধর্মঘটের প্রথম দিনে কার্যত অচল হয়ে পড়েছে সিলেট। পরিবহন ধর্মঘটের কারণে কয়েক শত পণ্যবাহী যানবাহনও সিলেটে এসে প্রবেশ করতে পারছে না।