চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সিলেট এমসি কলেজে ধর্ষণের ঘটনার ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন

সিলেটের ঐ‌তিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ এমসি কলেজের ছাত্রবাসে স্বামী‌কে আটকে স্ত্রীকে গণধর্ষণের ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে। ৭ কার্যদিবসের মধ্যে এই কমিটিকে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। এছাড়াও দায়িত্ব অবহেলার অভিযোগে ছাত্রাবাসের দুই নিরাপত্তাকর্মীকে বরখাস্ত করা হয়েছে।
শনিবার কলেজের অধ্যক্ষ সালেহ উদ্দিন এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

বিজ্ঞাপন

অধ্যক্ষ জানান, কলেজের গণিত বিভাগের প্রধান অধ্যাপক আনোয়ার হোসেন, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক জীবন কৃষ্ণ আচার্য্য ও একই বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক জামাল উদ্দিনের সমন্বয়ে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

এর আগে সিলেটের মুরারিচাঁদ (এমসি) কলেজের একটি ছাত্রাবাসে স্বামীকে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে। শুক্রবারের ওই ঘটনার পর রাত সাড়ে ১০টার দিকে পুলিশ ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ ও তার স্বামীকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।
পুলিশ জানায়: সন্ধ্যায় এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে বেড়াতে যায় ওই গৃহবধূ ও তার স্বামী। রাত ৯ টার দিকে ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী স্বামীকে মারধোর করে স্ত্রীকে ছিনিয়ে ছাত্রাবাসে নিয়ে যায়। পরে স্বামী পিছু পিছু গেলে তাকে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে ৫-৬ জন ছাত্রলীগ নেতাকর্মী গণধর্ষণ করে।

মহানগর পুলিশের এডিসি মিডিয়া জ্যোর্তিময় সরকার জানিয়েছেন, খবর পেয়ে শাহপরান থানা পুলিশের একটি দল গিয়ে স্বামী-স্ত্রীকে উদ্ধার করে।পরে স্ত্রীকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ ঘটনায় অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান চলছে।