চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে তুরস্কের সামরিক অভিযান, বিমান হামলা

সিরিয়ার উত্তরাঞ্চল থেকে মার্কিন বাহিনী প্রত্যাহারের পর কুর্দি মিলিশিয়াদের বিরুদ্ধে ‘অপারেশন পিস স্প্রিং’ নামে সামরিক অভিযান শুরু করেছে তুরস্ক।

বুধবার তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান বলেন: সিরিয়ার কুর্দি মিলিশিয়া এবং জঙ্গি গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) এর হুমকি দূর করে তুরস্কে আশ্রয় নেওয়া সিরীয় শরণার্থীদের ‘নিরাপদ অঞ্চলে’ ফেরানোর জন্য এ অভিযান শুরু করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

কুর্দি নেতৃত্বাধীন সিরিয়ান ডেমোক্র্যাটিক ফোর্সেস (এসডিএফ) জানিয়েছে: বেসামরিক নাগরিকদের এলাকাগুলোতে জঙ্গি বিমান হামলা চালিয়েছে তুরস্ক। সীমান্ত শহর রাস আল-আইনে কয়েকটি বিস্ফোরণেরও খবর পাওয়া গেছে।

টুইটারে প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান বলেন: আমাদের দক্ষিণ সীমান্তে সন্ত্রাসের একটি করিডোর যাতে তৈরি না হয় তা নিশ্চিত করা এবং সেখানে শান্তি প্রতিষ্ঠাই তুরস্কের এই অভিযানের উদ্দেশ্য।

বিজ্ঞাপন

রাতভর সীমান্তে বিপুল সংখ্যায় সৈন্য সমাবেশ এবং সাঁজোয়া যান জড়ো করে তুরস্ক। প্রথম ঘণ্টাতেই উত্তর-পূর্ব সিরিয়ায় কুর্দি মিলিশিয়া গোষ্ঠী এসডিএফের অবস্থানে বিমান হামলা চালানো হয়েছে। এতে প্রাণহানির কোনো খবর এখনও পাওয়া যায়নি।

এ অভিযানে তুরস্কের সৈন্যদের সাথে জড়ো হয় তাদের সমর্থিত সিরিয়ান আরবদের বিদ্রোহী গোষ্ঠীগুলোর জোট সিরিয়ান ন্যাশনাল আর্মির কয়েক হাজার মিলিশিয়া।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সিরিয়ার উত্তরাঞ্চল থেকে মার্কিন সেনা সরিয়ে নেওয়ার পর সেখানে তুরস্কের এ অভিযান শুরু হয়।

সিরীয় কুর্দি বাহিনী যুক্তরাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ মিত্র। তারা জঙ্গি গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটকে (আইএস) পরাজিত করতে মার্কিন বাহিনীকে সহায়তা করেছে। কিন্তু তুরস্কের অভিযান শুরুর আগে যুক্তরাষ্ট্র এ অভিযানে জড়িত হতে চায় না জানিয়ে সিরিয়া থেকে সেনা সরিয়ে নেয়।

Bellow Post-Green View