চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সিরিসেনার পার্লামেন্ট ভেঙে দেয়ার সিদ্ধান্ত অবৈধ: শ্রীলংকার সুপ্রিম কোর্ট

ক্ষমতার দ্বন্দ্বের জেরে গত মাসে মধ্যরাতে শ্রীলংকার প্রেসিডেন্ট মাইত্রিপালা সিরিসেনা পার্লামেন্ট ভেঙে দিতে ডিক্রি জারি করেছিলেন তা অসাংবিধানিক বলে রুল জারি করেছে দেশটির সর্বোচ্চ আদালত। আদালতের এই রুল জারি করার পর শ্রীলংকায় চলমান রাজনৈতিক সংকট নতুন করে আবারো সংকটে পড়লো।

এ রায় দেয়ার পর পদচ্যুত প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহ আবারো তার প্রধানমন্ত্রীত্ব পদে ফিরে আসার সুযোগ পেলেন। সুপ্রিম কোর্টে এই রুলের পর দেশটির আইন সভা আবারো বসার সুযোগ তৈরি হলো।

তবে প্রেসিডেন্ট মাইত্রিপালা সিরিসেনা দেশটির সর্বোচ্চ অাদালতের এ রায়কে গ্রহণ করেননি। এর ফলে তিনি ইমপিচমেন্ট হতে পারেন বলে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা মনে করছেন।

Advertisement

এর আগে অক্টোবরের শেষ দিকে দেশটির প্রেসিডেন্ট মাইত্রিপালা সিরিসেনা প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহকে বরখাস্ত করে ওই পদে সাবেক রাষ্ট্রপতি মাহিন্দা রাজপাকসেকে বসানোর পর থেকেই দেশটি রাজনৈতিকভাবে চরম সংকট পরে।

এর আগে ২৬ অক্টোবর পরিস্থিতি আরও উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। রনিল বিক্রমাসিংহ প্রধানমন্ত্রীর বাস ভবন না ছেড়ে জনপ্রিয়তার বিচার করতে একটি সংসদীয় নির্বাচনের দিতে আহ্বান করেন।

তখন রনিল বিক্রমাসিংহকে বরখাস্ত করার পাশাপাশি সিরিসেনা নভেম্বরের মাঝামাঝি পর্যন্ত সংসদ স্থগিত করেছিলেন। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১০ নভেম্বর সংসদ ভেঙে দিয়ে আগামী ৫ জানুয়ারি শ্রীলংকার নির্বাচন আহ্বান করেন প্রেসিডেন্ট সিরিসেনা।

তিন দশকের গৃহযুদ্ধের অবসান ঘটিয়ে ২০০৯ সালে জনপ্রিয় নেতা দেশটির প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছিলেন।