চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সিরিজ নির্ধারণী ‘চ্যালেঞ্জ-ম্যাচ’ আজ

বাংলাদেশ-সাউথ আফ্রিকার মধ্যকার দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের শেষ টেস্ট ম্যাচটি আজ। বৃষ্টিবিঘ্নিত চট্টগ্রামের প্রথম টেস্টের পর ঢাকার মিরপুরে শেষ ম্যাচটিতে জয়ের লক্ষ্যকে সামনে রেখেই মাঠে নামবে আজ দু’দল।

শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে আজকের ম্যাচটিতে মাঠে গড়ানোর আগে অনেকগুলো কারণে ‘চ্যালেঞ্জ-ম্যাচ’-এর ‘তকমা’ লেগেছে। বিশ্বের এক নম্বর দলের বিপক্ষে তাদের মতোই ‘অলআউট-ক্রিকেট’ খেলে চ্যালেঞ্জ জানাতে প্রস্তুত টিম-টাইগার্স। বিপরীতে প্রোটিয়াদের লক্ষ্য; যেকোন মূল্যে সিরিজটা নিজেদের দখলে নেয়া।

বিজ্ঞাপন

প্রথম টেস্টে বৃষ্টির বাধার কারনে দুর্দান্ত পারফর্ম করা টাইগার বাহিনী বিশ্বের এক নম্বর টেস্ট দলের বিপক্ষে ড্র করে। বৃষ্টিতে শেষ দুদিন ভেসে না গেলে ম্যাচটি ফলাফল পাওয়াটাই ছিলো স্বাভাবিক। আর তা বাংলাদেশের অনুকূলে যাওয়ার সম্ভাবনাই প্রবল ছিলো। কারন প্রথম ইনিংস শেষে লিড নিয়ে এগিয়ে ছিলো টাইগার বাহিনী। বৃষ্টিতে ম্যাচ পণ্ড হওয়ার আগেও এগিয়ে ছিলো মুশফিক বাহিনী।

শেষ টেস্টের ঠিক আগের দিন। শ্রাবণ মেঘের আনাগোনা কাটিয়ে ঝলমলে রোদ। মিরপুরের আকাশ চকচকে। পরিচিত ভেন্যু, টসটাও খুব বেশি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নয় বৃহস্পতিবার সকালে। যতটা জরুরী হোম অফ ক্রিকেটের উইকেটের আচরণ। বাউন্সি পিচই পাওয়ার কথা দুদলের শেষ টেস্টে।

বিজ্ঞাপন

অবশ্য উইকেটের আচরণের চেয়েও গুরুত্বপূর্ণ প্রথম দিনের শুরুর সেশনটা। হোম অফ ক্রিকেটে প্রি-ম্যাচ প্রেস কনফারেন্সে ক্যাপ্টেন নিজেও জানিয়েছেন টেস্টের শুরুটা ভালো করাটা কতোটা চ্যালেঞ্জিং আর কি পরিমাণ সিরিয়াস তারা।

মুশফিকের দলের সিরিয়াসনেসের কথা জানেন হাশিম আমলারাও। তবে শেষ সুযোগটা কাজে লাগাতে বাংলাদেশের চেয়েও কয়েকগুণ বেশি সিরিয়াস টিম প্রোটিয়া। বাউন্সি উইকেটের সুবিধা নিতে যেমন আছে স্টেইন-মরকেলদের প্রস্তুতি ব্যাট হাতে লড়াই ধরতে তৈরী কক, ডুমিনি, ডু প্লেসিসরা।

আমলার যেমন স্টেইন, মরকেলরা আছেন; মুশফিকের সেরা অস্ত্র মুস্তাফিজ এবং শহীদ। মুস্তাফিজের বিপদজনক কাটার, স্লোয়ারের সঙ্গে শহীদের সেরা ফর্ম। সিরিজ নিতে প্রোটিয়ারা যদি ‘অলআউট ক্রিকেটটা’ খেলে তবে সেটিকেই বাইশগজে চ্যালেঞ্জ জানাতে চান বাংলাদেশ ক্যাপ্টেন।

বৃষ্টিতে ড্র হওয়া চট্টগ্রাম টেস্টে বাংলাদেশের বেস্ট ইলেভেনই মিরপুরে থাকতে পারে অপরিবর্তিত। ওই ম্যাচের টাইগারদের ‘লড়াই করা পারফরমেন্স’ ধরে রাখাটাও আরেকটা চ্যালেঞ্জ।

Bellow Post-Green View