চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সিনেমা হলে মুক্তি না পেলে অস্কার নয়, কিন্তু এবার?

করোনার কারণে এ বছর স্ট্রিমিং প্লাটফর্মের ছবিগুলোও অস্কার মনোনয়নের জন্য অংশ নিতে পারবে…

কোনো সিনেমা হলে মুক্তি না পেলে তা অস্কারে অংশ নিতে পারে না। এটাই নিয়ম। কিন্তু শুধুমাত্র এই বছরের জন্য নিয়ম শিথিল করেছে অস্কার কর্তৃপক্ষ।

কারণ করোনাভাইরাসের কারণে সিনেমা হল বন্ধ থাকায় ছবি মুক্তি দিতে পারছেন না নির্মাতারা।

বিজ্ঞাপন

দ্য অ্যাকাডেমি অব মোশন পিকচার্স অ্যান্ড সাইন্সেস এর তরফ থেকে মঙ্গলবার এই সিদ্ধান্ত জানানো হয়। করোনাভাইরাসের কারণে বেশ কিছু পরিবর্তন দেখা যাবে ৯৩ তম অস্কারে। তার মধ্যে একটি হলো সাউন্ড মিক্সিং এবং সাউন্ড এডিটিং ক্যাটাগরি দুটি এক হয়ে হবে বেস্ট অ্যাচিভমেন্ট ইন সাউন্ড।

করোনা মোকাবেলার জন্য সিনেমা হল বন্ধ ঘোষণা করার পর অস্কার নিয়ে তৈরি হয়েছিল প্রশ্ন। নির্মাতারা হলে সিনেমা মুক্তি দিতে না পারলে অস্কারে যোগ্যতা পাবে কীভাবে তা নিয়ে চলছিল জল্পনা-কল্পনা।

এর আগে হলে সিনেমা মুক্তির নিয়মে কঠোর থাকলেও চলমান পরিস্থিতির কারণে নিয়ম শিথিল করেছে অস্কার। কারণ সিনেমা হলগুলো কবে আবার স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরবে তার নিশ্চয়তা নেই। ফলে নির্মাতারা তাদের সিনেমা মুক্তির জন্য অনলাইন প্ল্যাটফর্মগুলোকে বেছে নিচ্ছেন।

করোনাভাইরাসের কারণে এবছরের অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানগুলো সব অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। অনেকগুলোই বাতিল হয়ে গেছে। কিন্তু ৯৩তম অস্কারের আয়োজন এখনও পেছানো হয়নি। সব ঠিক থাকলে ২০২১ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি লস অ্যাঞ্জেলসে বসবে অস্কারের আসর। -ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস