চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সিনেমায় পঙ্কজ ত্রিপাঠির সেরা পাঁচ চরিত্র

বড় পর্দা হোক কিংবা ওয়েব সিরিজ, এক ঘণ্টা হোক বা পাঁচ মিনিট! তিনি থাকা মানেই অসাধারণ অভিনয়, যা নিয়ে দ্বিমত পোষণ করবেন না কেউই। শুধুমাত্র তার অভিনয়ের জন্যই দর্শকদের প্রতি এতোটা ভালোবাসা। বলছি, জনপ্রিয় অভিনেতা পঙ্কজ ত্রিপাঠির কথা।

২০০৪ সালে ‘রান’ সিনেমায় ছোট্ট একটি চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে বলিউড চলচ্চিত্রে আত্মপ্রকাশ করেছিলেন পঙ্কজ ত্রিপাঠি। এরপর ৪০টির বেশি চলচ্চিত্র এবং ৬০টি টেলিভিশন শোতে কাজ করেছেন এই অভিনেতা। যদিওবা বিগত কয়েক বছরে তিনি সবার নজর কেড়েছেন। মূলত ২০১২ সালে ‘গ্যাংস অব ওয়াসিপুর’ চলচ্চিত্র সিরিজে নেতিবাচক ভূমিকায় অভিনয়ের মাধ্যমে সাফল্য এসেছিল পঙ্কজ ত্রিপাঠির ক্যারিয়ারে। যার পর থেকে আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে।

পঙ্কজ ত্রিপাঠির ক্যারিয়ারে ভিন্ন ধরনের পাঁচটি চরিত্রের কথা থাকলো এই ফিচারে:

‘গ্যাংস অব ওয়াসিপুর’ এর সুলতান 
‘গ্যাংস অব ওয়াসিপুর’ সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হওয়ার আগে পঙ্কজ ত্রিপাঠি কাছ করেছিলেন বেশ কিছু বিজ্ঞাপন, টিভি শো এবং সিনেমার ছোট চরিত্রে। তবে অনুরাগ কাশ্যপ পরিচালিত এই সিনেমার সুলতান চরিত্রটি তাকে দর্শক মহলে ব্যাপকভাবে প্রসংশা এনে দেয়। যার প্রভাব আজও ত্রিপাঠির ক্যারিয়ারে রয়েছে। যদিওবা চরিত্রটি নেতিবাচক ছিল। তবে চরিত্রটি খুবই প্রভাব ফেলে তার ক্যারিয়ারে।

বিজ্ঞাপন

‘স্ত্রী’র রুদ্র 
বলিউডের হরর কমেডি সিনেমার মধ্যে অন্যতম জনপ্রিয় সিনেমা হলো ‘স্ত্রী’। যার মূল ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন রাজকুমার রাও এবং শ্রদ্ধা কাপুর। তবে সিনেমার অন্যতম আকর্ষণ ছিল পঙ্কজ ত্রিপাঠির রুদ্র চরিত্রটি। যিনি জানতেন ভূত স্ত্রী’র আসল ব্যাকস্টোরি সম্পর্কে। পর্দায় যার বর্ণনা বেশ কৌতুকের ছলেই তুলে ধরেছিলেন অভিনেতা।

‘মাসান’ এর সাদ্ধ্যেয়া
পঙ্কজ ত্রিপাঠির অন্যতম জনপ্রিয় একটি চরিত্র হলো ‘মাসান’ সিনেমার সাদ্ধ্যেয়া চরিত্রটি। যেই সিনেমার সবচেয়ে সুন্দর দৃশ্য হলো রেল স্টেশনে যখন রিচা চাড্ডা (দেবী) এবং পঙ্কজ ত্রিপাঠি (সাদ্ধ্যেয়া) একসাথে একে অপরের পাশে থেকে কাজ শুরু করেছিলেন।

‘আনারকলি অব আরাহ’র রঙ্গিলা 
নারীকেন্দ্রিক সিনেমা ‘আনারকলি অব আরাহ’ সিনেমাটির রঙ্গিলা চরিত্রটি মন জয় করেছিল দর্শকদের। যেখানে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছিল পঙ্কজ ত্রিপাঠিকে। ছবিটির কাহিনী গড়ে উঠে বিহারের আরাহ-এর অর্কেস্ট্রা গায়িকা আনারকলিকে(স্বরা ভাস্কর) নিয়ে। আরাহ -এর যে কোন নাচগানের অনুষ্ঠানে স্টেজে উঠলেই নিজের ‘লটকা- ঝটকা’ তে উপস্থিত দর্শককে মাতিয়ে তোলেন আনারকলি। একই সাথে দেখানো হয়েছে নিজের যৌনতা দিয়ে কীভাবে পুরুষদের আকর্ষণ করার সমস্ত ক্ষমতা রাখেন আনারকলি। যা নিয়ে বেশ গর্বও রয়েছে তার।

‘লুডু’র সাত্তু 
করোনা পরিস্থিতির মাঝেই গেল বছরের নভেম্বরে ওটিটি প্লাটফর্মে (নেটফ্লিক্স) মুক্তি পেয়েছিল অনুরাগ বসু পরিচালিত ‘লুডু’ ছবিটি। তারকাবহুল যেই সিনেমাটির সবচেয়ে বড় আকর্ষণ ছিল পঙ্কজ ত্রিপাঠির সাত্তু চরিত্রটি। যেখানে চার ভিন্ন গল্পকে এক সুতোয় বেধেছিলেন এই সাত্তু চরিত্রটি।