চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সিনেমার প্রস্তাব নিয়ে মুখ খুললেন সারিকা সাবাহ

সারিকা সাবাহ এই প্রজন্মের নাট্যাভিনেত্রী । মোস্তফা কামাল রাজ পরিচালিত ‘ফ্যামিলি ক্রাইসিস’ ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পান তিনি। এ নাটকে ‘ঝুমুর’ চরিত্রে অভিনয় করেন এ অভিনেত্রী। বর্তমানে নাটকে নিয়মিত অভিনয় করছেন।

বিজ্ঞাপন

মা–বাবার একমাত্র সন্তান সারিকা। হতে চেয়েছিলেন প্রকৌশলী। নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কম্পিউটারবিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগ থেকে স্নাতক করেছেন।

কিন্তু এখন পুরোদস্তুর অভিনেত্রীই হতে চান তিনি।

সারিকা বলেন, ‘আমার পরিবারের বেশির ভাগ সদস্যই প্রকৌশলী। এ কারণেই প্রকৌশলী হওয়ার তাগিদ ছিল পরিবার থেকে। কিন্তু অভিনয়টা আমার ভালো লেগে গেছে। এখন এখানেই থাকতে চাই।’

ফ্যামিলি ক্রাইসিস নাটকে ঝুমুর চরিত্রটি দিয়ে মূলত আলোচনায় এসেছেন সারিকা সাবাহ।

২০১৮ সালের জানুয়ারি মাসের কথা। শুরুটা হয়েছিল গুণী নির্মাতার হাত দিয়ে।

এক সপ্তাহের মাথায় আদনান আল রাজীব ও রেদওয়ান রনির মতো নির্মাতার সঙ্গে দুটি বিজ্ঞাপনচিত্রের মডেল হন সারিকা।

এর পরপরই সারিকার গতিপথ পাল্টে যেতে থাকে। কয়েক দিন পর পরিচালক মুহাম্মদ মোস্তাফা কামাল রাজের ফ্রেন্ডস নামে এক ঘণ্টার একটি নাটকে কাজের সুযোগ হয়।

বিজ্ঞাপন

ওই বছরই কাজল আরেফিন অমি’র ‘মেয়ে’ নাটকে অভিনয়ের সুযোগ হয়।

ডিসেম্বরে মাসে একই পরিচালকের ‘জাস্ট চিল’ নাটকে অভিনয় করেন সারিকা।

এরপর আর ফিরে তাকাতে হয়নি। একের পর এক কাজ করতে থাকেন।

সম্প্রতি শেষ হয়েছে তার অভিনীত সবচেয়ে আলোচিত ধারাবাহিক নাটক ‘ফ্যামিলি ক্রাইসিস’।

গত সপ্তাহে ‘চ্যানেল আই তারকা কথন’ -এ অতিথি হয়ে আসেন তিনি। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ‘ফ্যামিলি ক্রাইসিস’ নাটকের নির্মাতা মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ।

অনুষ্ঠানে সারিকা কথা বলেন ‘ফ্যামিলি ক্রাইসিস’ এবং তার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে।

তিনি সিনেমায় অভিনয় করতে চান কি না জানতে চাইলে সারিকা বলেন, ভালো কাজের সুযোগ আসলে অবশ্যই করবেন।

এরসাথে মোস্তফা কামাল রাজ যোগ করে বলেন, সারিকার জন্য তার কাছে অনেক সিনেমার প্রস্তাব আসে, কিন্তু সেগুলোতে সারিকা উপযুক্ত নয় বলে ফিরিয়ে দেন তিনি। এবং এই ব্যাপারটা অনেক সময় সারিকা জানতেও পারে না। জানলেও অনেক পরে সারিকাকে জানান তিনি।