চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সিটি নির্বাচন ঘিরে নিরাপত্তা জোরদার

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে ঘিরে রাজধানীতে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর পাশাপাশি প্রত্যেক থানা এলাকায় মোতায়ন করা হয়েছে বাংলাদেশ বর্ডার গার্ডস (বিজিবি)। পুলিশ কর্মকর্তারা বলছেন, ভোটাররা যাতে নির্বিঘ্নে ভোট কেন্দ্রে যেতে পারেন সেদিকে সবচেয়ে বেশি নজর রাখবে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

রাত পোহালেই ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ এবং চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের ভোট গ্রহণের দিন। রোববার রাত থেকে শেষ হয়েছে সকল ধরণের নির্বাচনী প্রচারণা। ভোটাররা যাতে নির্বিঘ্নে ভোট কেন্দ্রে যেতে পারেন এজন্য সকাল থেকেই তৎপর রয়েছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী।

পুলিশ ও র‌্যাবের পাশাপাশি প্রতিটি ওয়ার্ডেই টহল দিচ্ছে বিজিবি। গোটা রাজধানী ছাড়াও ভোট কেন্দ্রগুলোর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে রাজারবাগ পুলিশ লাইন মাঠে পুলিশ সদস্যদের করণীয় নিয়ে নির্দেশনা দিয়েছেন ডিএমপি কমিশনার আসাদুজ্জামান মিয়া।

এসময় তিনি বলেন, প্রত্যেকটা কেন্দ্র ও ভোটারদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা এবং ভোটাররা বাড়ি থেকে যে রাস্তা দিয়ে, ভোটকেন্দ্রে ভোট দেবে এবং নিরাপদে যাকে খুশি ভোট দিয়ে বাড়ি ফিরে যাবে এমন সকল পর্যায়ের নিরাপত্তা দেবার দায়িত্ত্ব তাদের।

Advertisement

‘এজন্য তারা প্রত্যেকটি ওয়ার্ডের নিরাপত্তা জোরদার করেছেন এবং নির্বাচন যাতে সুষ্ঠু হয় সেই লক্ষে যা যা করা দরকার তাই করতে সকল পুলিশ সদস্যকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’

ডিএমপি কমিশনার জানান, পুলিশের কড়া পাহারায় বিভিন্ন কেন্দ্রে ব্যালট বাক্স এবং ব্যালট পেপার পৌঁছে দেয়া হয়েছে।

ডিএমপি জানায়, নির্বাচনকে ঘিরে সকল ধরণের প্রস্তুতি শেষ। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে ২৭ এপ্রিল রাত ১২টা থেকে ২৮ এপ্রিল রাত ১২টা পর্যন্ত ঢাকা মহানগরীতে সকল ধরণের যানবাহন চলাচল বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি সোমবার রাত ১২ থেকে মঙ্গলবার রাত ১২টা পর্যন্ত মোটরসাইকেল চালাচল নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

ভোটের দিন রাজধানীর ৯৩টি ওয়ার্ডে থাকবে র‌্যাব-পুলিশের মোবাইল টিম। সাদা পোষাকেও মোতায়ন থাকবে গোয়েন্দারা। ১০টি কন্ট্রোল রুমের মাধ্যমে গোটা রাজধানীর আইন-শৃঙ্খলার ওপর নজর রাখবে তারা।