চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সিটি নির্বাচনে বিচ্ছিন্ন সংঘর্ষ

বিএনপি জোটের বর্জনের পরও ঢাকা উত্তর-দক্ষিণ এবং চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিভিন্ন স্থানে বিচ্ছিন্ন সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সকাল ৮ টায় শুরু হয়ে বিকাল ৪টা পর্যন্ত চলে ভোটগ্রহণ।

রাজধানীর খিলগাঁও মডেল কলেজ কেন্দ্রে ২ কাউন্সিল প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ, পুলিশের লাঠিচার্জ, ফাঁকাগুলির ঘটনা ঘটে। এসময় এ কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ বন্ধ থাকে। সংঘর্ষের ঘটে কবি নজরুল কলেজেও। ২ দফা হাতবোমা বিস্ফোরণ ও সংঘর্ষের কারণে ঐ কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ স্থগিত করা হয়।

খিলগাঁও-এ আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী সরদার ফয়সাল বাশারকে তালতলা নূরবাগ মসজিদের সামনে কুপিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা, আওয়ামী লিগের বিরোধী প্রার্থী মোশতাক আহমেদ এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে দাবি করেছেন ফয়সালের সমর্থকরা।

রাজধানীর কমলাপুর ও মানিকনগরে ভোটকেন্দ্রের সামনে কাউন্সিলর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এসময় দু’পক্ষের ইটপাটকেল নিক্ষেপ, পুলিশের লাঠিচার্জ ও গুলির ঘটনা ঘটে।

Advertisement

মানিক নগরে ভোটকেন্দ্রের বাইরে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ লাঠি চার্জ করে এবং কয়েক রাউন্ড ফাকা গুলি ছোঁড়ে। এতে আহত ৫ জন আহত হয়।

ঢাকা দক্ষিণের সুরিটোলা প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে ব্যালট বাক্স ছিনতাইয়ের অভিযোগ করে বিএনপি। এ কেন্দ্রে পুলিশের লাঠিচার্জের ঘটনা ঘটে। সকাল সাড়ে ৮টায় ঘটনার পর সাময়িকভাবে ভোটগ্রহণ প্রায় সোয়া ২ ঘণ্টা বন্ধ রাখা হয়। পরে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ায় কেন্দ্রটিতে ভোটগ্রহণ শুরু হয়।

এছাড়াও শাখারীবাজার উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ ও পুলিশের লাঠিচার্জের পর ভোটগ্রহণ কিছুক্ষণ বন্ধ ছিল।

ঢাকা উত্তর সিটির মোহাম্মদপুর এলাকার একটি ভোট কেন্দ্রে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীর একজন সমর্থককে মারধরের ঘটনা ঘটে। এতে ওই ব্যক্তির মাথা ফেটে যায়।

ঢাকা দুই সিটি ছাড়াও চট্টগ্রামের বিভিন্ন কেন্দ্রে কাউন্সিলর প্রার্থীদের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়।