চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সিঙ্গাপুরে অভিবাসী শ্রমিকদের করোনা সংক্রমণ তিনগুণ বেশি

করোনাভাইরাসে সিঙ্গাপুরের প্রায় অর্ধেক অভিবাসী শ্রমিক আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানিয়েছে একটি উন্নয়ন সংস্থা।

শ্রমিকদের নিয়ে কাজ করা সংস্থাটির বরাতে বিবিসি বলছে, করোনায় সিঙ্গাপুরে অভিবাসী শ্রমিকের আক্রান্তের সংখ্যা তিনগুণ বেশি।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

গত নয় মাসে কোভিড -১৯ এ আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৫২ হাজার অভিবাসী শ্রমিক, যা কিনা ৪৭ শতাংশ। এছাড়াও অভিবাসী বাদে ৪ হাজার জনগণের করোনা পজেটিভ এসেছে।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, করোনাভাইরাস সংক্রমণের হার বেশি হওয়ার একটি কারণ অল্প জায়গায় অনেক বেশি শ্রমিকের বসবাস।

এছাড়া শ্রমিকরা সবসময় দলবদ্ধভাবে চলাফেরা করতে পছন্দ করেন, ফলে তাদের মধ্যে বেশ দ্রুত সংক্রমণ ছড়িয়েছে।

সিঙ্গাপুরের অবকাঠামো ও জাহাজ নির্মাণ খাতে কাজ করছেন ৩ লাখেরও বেশি শ্রমিক। তাদের ডরমেটরিতে একই কক্ষে গাদাগাদি করে থাকতে হয় অনেককে।

দেশটিতে গত কয়েক মাস ধরে সাধারণ জনগণ এবং অভিবাসীদের সংক্রমণ প্রায় শূন্যের কোঠায় নেমেছে এবং কর্তৃপক্ষ সাধারণ জনগণের জন্য আরও বিধিনিষেধকে আরও সহজ করার ঘোষণা দিয়েছে।

সাধারণত দক্ষিণ এশিয়া থেকে স্বল্প বেতনের অভিবাসী শ্রমিক যারা মূলত নির্মাণ ও উৎপাদন খাতে সিঙ্গাপুরে কাজ করেন। বর্তমানে তারা চলাচলে এখনও নিষেধাজ্ঞার মুখোমুখি হন যা পরের বছর ধীরে ধীরে তুলে নেওয়া হবে।

দাতব্য সংস্থা ট্রান্সিয়েন্ট ওয়ার্কার্স কাউন্ট টু এর আলেক্স আউ বিবিসিকে বলেছেন, “সিঙ্গাপুরের জন্য প্রবাসী শ্রমিকদের বন্দীদের মতো আচরণ করার কোনও যৌক্তিকতা নেই। অনেককে আট মাস ধরে আটকে রাখা হয়েছে।”

এর আগে করোনার শুরুতে সিঙ্গাপুরে ডরমিটরিতে থাকা অভিবাসী শ্রমিকদের করোনাভাইরাস ঠেকাতে মাঠে নেমেছে দেশটির কর্তৃপক্ষ।

করোনার প্রকোপ দেখা দিলে দেশটির কর্তৃপক্ষ এসব ডরমিটরিগুলো সিল করে দেয়। সেখানে ব্যাপকভাবে পরীক্ষা চালানো হয়।