চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সালমানের থেকে কিছুই শিখতে পারিনি: সোমি আলি

সালমান খানের সঙ্গে ৮ বছরের সম্পর্ক ছিল সাবেক বলিউড অভিনেত্রী সোমি আলির। সেকারণে খবরের শিরোনামেই থাকতেন অভিনেত্রী। সম্প্রতি অভিনেত্রী এক সাক্ষাতকারে বলেছেন, সালমান তার সঙ্গে প্রতারণা করেছেন। আর সেকারণেই সম্পর্ক ভেঙে দিয়ে বলিউড ছেড়ে চলে গিয়েছেন সোমি।

বলিউডে কাজ করার অভিজ্ঞতা খুব একটা ভালো ছিল না সোমি আলির। তিনি বলেছেন, ‘দুজন নির্মাতা আমার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করতে চেয়েছিলেন। খুব বাজে একটা সম্পর্কেও জড়িয়েছিলাম। সব মিলিয়ে খুবই খারাপ ছিলাম।’

সোমি জানান, খারাপ অভিজ্ঞতাগুলোর কারণেই বলিউডে ফিরে আসার পরিকল্পনা করেননি তিনি।

বিজ্ঞাপন

‘সালমানের থেকে কিছুই শিখতে পারিনি’, এমনটাই বলেন সোমি। তবে সালমানের থেকে কিছু শিখতে না পারলেও তার বাবা-মায়ের কাছ থেকে অনেক কিছু শিখেছেন সোমি। তারা সব মানুষকে সমান চোখে দেখেন, ধর্মের দৃষ্টিতে দেখেন না। তার বাড়ি সবার জন্য উন্মুক্ত। সালমানের মা খুব মায়া করেন সবাইকে।

সোমি জানান, ব্যক্তিগত ভোগান্তি থেকে তিনি ‘নো মোর টিয়ার্স’ নামের একটি প্রতিষ্ঠান খুলেছেন।

সাক্ষাৎকারে সোমি জানান, ‘ম্যায়নে প্যায়ার কিয়া’ ছবি দেখে সালমানের প্রেমে হাবুডুবু খেতে থাকেন সোমি। তারপরই মাকে জানিয়ে দেন তিনি সালমানকেই বিয়ে করবেন। সেই কারণেই পাকিস্তান থেকে ভারতে আসেন সোমি। মুম্বাইতে এসেই মডেলিং জগতে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেন সোমি। মডেলিংয়ের পাশাপাশি শুরু হয় অভিনয়ও।

তারপরই সালমান খানের সঙ্গে সোমি আলির সম্পর্ক চর্চা শুরু হয় বলিউডে। একটানা ৮ বছর সম্পর্কের পর তাদের পথ আলাদা হয়ে যায়। সোমি জানিয়েছেন, ঐশ্বরিয়া তাদের প্রেমের মাঝে চলে আসেন। সালমানের প্রতারণা করেছিলেন, তাই সম্পর্ক থেকে সরে যান সোমি।

বিজ্ঞাপন