চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সামাজিক মাধ্যম ব্যবহারে সময় বেঁধে দিচ্ছে ব্রিটেন

প্রতিদিনের সামাজিক মাধ্যম ব্যবহারের সময়সীমা বেঁধে দিতে নীতিমালা তৈরি করতে যাচ্ছে ব্রিটেন।

এই নীতিমালা তৈরি করতে ব্রিটেনের চিফ মেডিকেল অফিসারকে নির্দেশ দিয়েছেন দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী ম্যাট হ্যানকক।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

কমবয়সীদের সামাজিক মাধ্যম ব্যবহারের নেতিবাচক প্রভাবে শঙ্কিত হ্যানকক বলেন,‘একজন বাবা হিসেবে খুব দুশ্চিন্তায় আছি। কারণ তরুণদের অতিরিক্ত সামাজিক মাধ্যম ব্যবহারের ক্ষতিকর প্রভাবগুলো প্রচুর পরিমাণে সামনে আসছে।তাদের মানসিক স্বাস্থ্যে নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে।’

এর সমাধানে তিনি বলেন, ‘তাই প্রধান মেডিকেল অফিসার ডেম স্যালি ডাভিসকে সামাজিক মাধ্যম ব্যবহারের পরিমিত সময় নির্ধারণ করার একটি নীতিমালা করতে বলেছি।

বিজ্ঞাপন

উদ্বেগজনক পরিস্থিতিতে আপাতত একটি উপায় অবশ্য বের করেছে ফেসবুক, ইন্সটাগ্রাম। উপায় হিসেবে ব্যবহারকারীদের সামাজিক মাধ্যম তৎপরতা পর্যবেক্ষণে টুল চালু করেছে তারা।

অ্যাপলও বসে নেই। সম্প্রতি আইফোন আসক্তি নিয়ন্ত্রণে ‘স্ক্রিন টাইম’ নামের একটি ফিচার চালু করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

তরুণদের চোখ মোবাইলস্ক্রিনে আঠার মতো আটকে রাখা ঠেকাতে এসব ব্যবস্থার পাশাপাশি ব্রিটেনে সামাজিক আন্দোলনও সক্রিয় হচ্ছে। জনসাধারণের জন্য চালানো হচ্ছে অতিরিক্ত সামাজিক মাধ্যম ব্যবহার বিরোধী প্রচারণা।

এরকমই একটি প্রচারণার চলেছে সেপ্টেম্বরজুড়ে। যার নাম,‘স্ক্রল ফ্রি সেপ্টেম্বর’। এই প্রচারণায় অন্তত পুরো সেপ্টেম্বরে ফেসবুক, টুইটার, স্ন্যাপচ্যাট থেকে দূরে থাকতে নাগরিকদের প্রতি আহ্বান জানায় ব্রিটেনের রয়্যাল সোসাইটি ফর পাবলিক হেলথ।