চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সাব্বির-আল আমিন ঝড়ে হারল তামিমরা

বৃষ্টি বাধায় মোহামেডান-প্রাইম ব্যাংকের ম্যাচটি প্রায় দুই ঘণ্টা বন্ধ ছিল। খেলা শুরু হলে ৪১ ওভার করে নির্ধারিত হয়। তাতে দুই আল-আমিনের বোলিং তোপে নির্ধারিত ওভারও খেলতে পারেনি তামিম ইকবালের মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। ব্যাট হাতে সাব্বির রহমানের ফিফটির পর প্রাইম ব্যাংকের কাছে শেষ পর্যন্ত ৭ উইকেটে হেরে মাঠ ছেড়েছে মোহামেডান।

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে খান সাহেব ওসমান আলি স্টেডিয়ামে শুরুতে ব্যাট করে ৩৬.১ ওভারে ১৪২ রানে গুটিয়ে যায় মোহামেডান। প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব ৩ উইকেট হারিয়ে ৮০ বল হাতে রেখেই বৃষ্টি আইনে ম্যাচ জিতে মাঠ ছাড়ে। দলটির অফস্পিনার আল-আমিন ৫ উইকেট নিয়েছেন, পরে সাব্বির অপরাজিত ছিলেন ৭৮ রানে।

বিজ্ঞাপন

মোহামেডান বৃষ্টিতে খেলা বন্ধের আগে ১৯ ওভারে ২ উইকেটে ৬৭ রান তুলেছিল। তামিম অপরাজিত ৩৬ রানের ইনিংসটা পরে ৪৬ রানে টেনে নিয়ে থেমেছেন। আগের ম্যাচে দেড়শ পেরোনো ইনিংস খেলা বাঁহাতি তারকা অফস্পিনার আল-আমিনের বলে নাজমুলকে ক্যাচ দেন।

বিজ্ঞাপন

পরের ৪১ রানের মধ্যে আরো চার উইকেট হারায় মোহামেডান। সবগুলোই আল-আমিনের দখলে। ৫৫ রানের মধ্যে শেষ ৭ উইকেট হারায় তামিমের দল। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রহমত শাহর ২৪!

আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি করা ২৩ বর্ষী অলরাউন্ডার আল-আমিন এদিন বল হাতে নায়ক। মাত্র ৬ ওভার বল করে ২৫ রানে নিয়েছেন ৫ উইকেট। অন্যদিকে সিনিয়র জন, আল-আমিন হোসেন পেসে ২ উইকেট তুলে নিয়ে তাকে যোগ্য সঙ্গ দিয়েছেন। রুবেল-সৌম্যর দখলে ১টি করে উইকেট।

পরে জবাব দিতে নেমে প্রাইমরা দ্রুত দুই উইকেট হারালেও বিপদ বাড়তে দেননি সাব্বির ও তাইবুর রহমান। ৪ চার ও ৫ ছয়ে ৭৫ বলে ৭৮ রানে অপরাজিত ছিলেন সাব্বির। আর ৪২ রানে অপরাজিত থেকে জয়ে নোঙর ভিড়িয়েই মাঠ ছেড়েছেন তাইবুর।

Bellow Post-Green View