চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সাদার আগেই রঙিন ক্রিকেট ছাড়বেন সাকিব

কেবল বাংলাদেশের ক্রিকেটাঙ্গনই নয়, আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলও আলোচনায় সরগরম। সাকিব আল হাসানের টেস্ট থেকে স্বেচ্ছায় ছয় মাস দূরে থাকতে চাওয়ার বিষয়টি নিয়ে। বাংলাদেশ যেখানে বছরে গড়ে খেলতেই পারে মাত্র পাঁচ-ছয়টি টেস্ট, সেখানে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের ছয় মাসের বিরতির আবেদন। সময়টাতে মাত্র চারটি টেস্টই খেলবে টাইগাররা। এই দূরে থাকার ইচ্ছে কী কোনও দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনার ইঙ্গিত দিচ্ছে? হয়ত আর টেস্টেই ফিরবেন না সাকিব!

সাকিব অবশ্য দীর্ঘমেয়াদী প্রসঙ্গ হেসেই উড়িয়ে দিলেন। মঙ্গলবার বনানীর নিজ বাসায় সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়েছিলেন। সেখানে ভিনদেশি তারকাদের কথা টেনে দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা সম্পর্কিত একটা প্রশ্নও ছুটে গেল সাকিবের দিকে। জানতে চাওয়া হল মালিঙ্গা-ধোনিদের মত কোন একটি ফরম্যাট ছেড়ে দেওয়ার কথা ভাবছেন না তো সাকিব!

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

সাকিব আশ্বস্ত করলেন, ‘এমন তো নয় আমি ক্রিকেটই খেলছি না। টেস্টও খেলব। কেন খেলব না? আমার তো ইচ্ছা আছে সবার শেষে টেস্ট থেকে অবসরে যাবো। তার আগে টি-টুয়েন্টি এবং ওয়ানডে থেকে রিটায়ার্ড করব। শেষে টেস্ট থেকে রিটায়ার্ড করব।’

সাকিব শুধু টেস্ট খেলে যাওয়ার কথাই বললেন না। বললেন অলরাউন্ডার ভূমিকাতেও দেখা যাবে তাকে। সেটা বলতে হল এমন একটা প্রশ্ন ছুঁটে এল বলে- আপনি ফিরে ব্যাট-বল দুটোই করবেন তো?

ক্যারিয়ারকে দীর্ঘমেয়াদী করতে টেস্টকে বিদায় জানিয়েছেন অনেক নামকরা ক্রিকেটারই। সাকিব আপাতত তেমনটা ভাবছেন না। টাইগার ক্রিকেটের জন্য সেটাই আপাতত স্বস্তির। সাফল্যের ঊর্ধ্বগামী গ্রাফটা এগিয়ে নিতে তার প্রয়োজনীয়তা যে এখনও শেষ হয়ে যায়নি।

Bellow Post-Green View