চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘সাইফ অনেককেই ভুল প্রমাণিত করেছে’

টি-টুয়েন্টির সঙ্গে মানানসই নয় সাইফ হাসানের ব্যাটিং, কথাটিকে প্রতিষ্ঠা পেতে দেননি এ তরুণ। বঙ্গবন্ধু টি-টুয়েন্টি কাপে সুযোগ পেয়ে মেলে ধরেছেন নিজেকে। ফরচুন বরিশালের ওপেনার তামিম ইকবালের সঙ্গে জুটি বেধে শেষ দুটি ম্যাচে করেছেন ‍দুর্দান্ত ব্যাটিং।

টেস্ট দলের ওপেনার সাইফ বেক্সিমকো ঢাকার বিপক্ষে শনিবার রাতেই করেছেন ফিফটি। আগের ম্যাচেও খেলেন ৪৬ রানের দারুণ ইনিংস। জানান দিয়েছেন টি-টুয়েন্টির দাবি মেটাতেও প্রস্তুত তিনি।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিপিএলের আদলে শুধুমাত্র স্থানীয় ক্রিকেটারদের নিয়ে টুর্নামেন্ট আয়োজনের উদ্দেশ্য ছিল এমনই। যেখানে বিদেশি খেলোয়াড়দের দাপটে হারিয়ে যাওয়ার ভয় থাকবে না। স্থানীয়রা জানান দেবেন সুযোগ পেলে আমরাও পারি।

বিজ্ঞাপন

টুর্নামেন্ট আয়োজনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখা বিসিবির পরিচালক ও বেক্সিমকো ঢাকার কোচ খালেদ মাহমুদ সুজন মনে করেন, স্থানীয়দের নিয়ে টি-টুয়েন্টি আসর প্রতি বছর আয়োজন করলে এমন অনেক প্রতিভা বেরিয়ে আসবে। বললেন, তাতে ভাঙবে অনেক ভুল আর তৈরি হবে সম্ভাবনার পথ।

‘মনে করি এই টুর্নামেন্টের যেটা উদ্দেশ্য ছিল, ভালোভাবেই পূরণ হয়েছে। প্রত্যেকটা ম্যাচ দেখেন, বেশ উত্তেজনাপূর্ণ হচ্ছে। আবার অনেক ছেলে পারফর্ম করছে, যাদের নিয়ে আমরা অতটা প্রত্যাশা করিনি। সাইফ হাসানের ব্যাপারে যে কথাটা উঠেছিল, সাইফ টি-টুয়েন্টি পারবে না। কিন্তু ও যেভাবে ব্যাট করেছে, অনেককেই ভুল প্রমাণিত করে দিয়েছে।’

‘মনে হয়, বাকি যারা আছে রবি (রবিউল ইসলাম) কথা যদি বলেন, হয়তবা বিপিএল যদি ওভাবে হতো বিদেশি ক্রিকেটার থাকত, কোনো টিমে খেলারই সুযোগ পেত না। এটা একটা বড় সাইন যে, আমাদের ছেলেরা খেলার সুযোগ পাচ্ছে। জায়গা মতো ব্যাটিং করার সুযোগ পাচ্ছে। ভবিষ্যতে এই টুর্নামেন্টটা যদি আমরা কন্টিনিউ করতে পারি, তাহলে আমার মনে হয় আগামী কয়েকবছরে আমরা বেশকিছু তরুণ ক্রিকেটার পেয়ে যাব। যারা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ভালো খেলবে, আমাদের ম্যাচ জেতাতে সাহায্য করবে।’