চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সাংবাদিকের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা বাতিল করলেন ভারতের সুপ্রীম কোর্ট

সাংবাদিক বিনোদ দুয়ার বিরুদ্ধে করা রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা বাতিল করে দিয়েছেন ভারতের সুপ্রীম কোর্ট এবং আদালত বলেছেন, ১৯৬২ সালের আদেশ সব সাংবাদিককে এই ধরণের অভিযোগ থেকে রক্ষা করবে।

বিজেপি নেতার অভিযোগের ভিত্তিতে কেন্দ্র সরকারের করোনা নিয়ন্ত্রণ নিয়ে সমালোচনা করায় হিমাচল প্রদেশে বিনোদ দুয়ার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা করা হয়।  এফআইআরে তার বিরুদ্ধে ভুয়া খবর ছড়ানো, জনগণের মধ্যে উপদ্রব সৃষ্টি করা, মানহানিকর তথ্য ছাপানো এবং জনগণের অনিষ্ট করার মতো বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগ দেওয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

সিনিয়র ওই সাংবাদিক পরে এফআইআরের বিরুদ্ধে সুপ্রীম কোর্টে যান এবং হয়রানির জন্য অপূরণীয় ক্ষতিপূরণ চান।

বিজ্ঞাপন

ওই মামলা বাতিল করে সুপ্রীম কোর্ট বিনোদ দুয়ার আবেদনও বাতিল করে দেন। তার আবেদন ছিলো ১০ বছরের অভিজ্ঞতাসম্পন্ন কোনো সাংবাদিকের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের না করা যদি হাইকোর্টের বিচারকের নেতৃত্বে একটি প্যানেল সেটি নিশ্চিত না করে।

বিচারক ইউইউ ললিত এবং ভিনেত সরন বলেন, এতে আইনসভায় অচেতনা দেখা দেবে।

কিন্তু সুপ্রীম কোর্ট বিশেষভাবে বলেন, রাষ্ট্রদ্রোহ নিয়ে সাবেক বিচারক কেদার নাথ সিংয়ের বিচারের আওতায় সব সাংবাদিকদের সুরক্ষা থাকবে।

১৯৬২ সালের সুপ্রীম কোর্টের ওই আদেশে বলা হয়েছে, আইনী উপায়ে উন্নতি বা পরিবর্তনের লক্ষ্যে সরকারের পদক্ষেপগুলি নিয়ে অসন্তুষ্টি প্রকাশ করার জন্য কঠোর শব্দগুলোর ব্যবহার রাষ্ট্রদ্রোহ নয়।