চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সাংবাদিকের কাছ থেকে ছিনতাইয়ের ঘটনায় গ্রেপ্তার ৩

রাজধানীর মোহাম্মদপুরে এক সাংবাদিকের কাছ থেকে মানিব্যাগ ও মোবাইল ফোন ছিনতাইয়ের ঘটনায় তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা গুলশান বিভাগ।

জানা যায়, গত ১ ডিসেম্বর ছিনতাইয়ের কবলে পড়েন দৈনিক ভোরের কাগজের সিনিয়র রিপোর্টার দেব দুলাল মিত্র। কিছু বুঝে ওঠার আগেই গলায় ছুরি ধরে পকেট থেকে মানিব্যাগ ও দুটি মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয় ছিনতাইকারীরা। ওই ঘটনায় ছিনতাই চক্রের তিন সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

গ্রেপ্তাররা হলেন- মামুন হোসেন (২০), ওয়াসিম মোড়ল ওরফে মহসিন (৩২), মো. সজল (২০)। গুলশান গোয়েন্দা বিভাগের একটি দল মঙ্গলবার রাতে তাদের গ্রেপ্তার করে।

বুধবার দুপুরে ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান অতিরিক্ত কমিশনার (ডিবি) এ কে এম হাফিজ আক্তার।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, গত ১ ডিসেম্বর রাতে ধানমন্ডির শংকর বাসস্ট্যান্ড থেকে পায়ে হেঁটে বাসায় ফিরছিলেন দৈনিক ভোরের কাগজ পত্রিকার সিনিয়র রিপোর্টার দেব দুলাল মিত্র। পশ্চিম ধানমন্ডি জামে মসজিদ পার হওয়ার পর বিপরীত দিক থেকে রিকশায় করে আসা দুই ছিনতাইকারী তাকে থামিয়ে কিছু বুঝে ওঠার আগেই গলায় ছুরি ধরে। এসময় ছিনতাইচক্রের অন্যজন পকেট থেকে মানিব্যাগ ও দুটি মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেন। পরে ছিনতাইকারীরা পালিয়ে যান। এ বিষয়ে পরদিন সকালে হাজারীবাগ থানার মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগী সাংবাদিক দেব দুলাল।

হাফিজ আক্তার বলেন, মামলার প্রেক্ষিতে গোয়েন্দা পুলিশ ছায়া তদন্ত শুরু করে। তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় ছিনতাইকারীদের সম্পর্কে জানা যায় যে শংকর, জাফরাবাদ, রায়েরবাগ এলাকায় একাধিক ছিনতাইকারী চক্র সক্রিয় রয়েছে। ছিনতাইকারীরা উঠতি বয়সী। শংকর, জাফরাবাদ, রায়েরবাগ এলাকা ঘনবসতিপূর্ণ হওয়ায় প্রধান সড়ক থেকে ছিনতাইয়ের পর তারা দ্রুত জনসাধারণের মাঝে মিশে যায়।

ছিনতাইকারীদের অবস্থান জানার পর গুলশান গোয়েন্দা বিভাগের ক্যান্টনমেন্ট জোনাল টিম শংকর বাসস্ট্যান্ড থেকে ওই তিন ছিনতাইকারীকে গ্রেপ্তার করে। এসময় তাদের কাছ থেকে ছিনতাই করা মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়।

ওয়াসিম মোড়লের বিরুদ্ধে ঢাকা ও ঢাকার বাইরে ডাকাতিসহ চারটি মামলা এবং সজলের বিরুদ্ধে একটি মামলা বিচারাধীন।