চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সর্ম্পকে জড়িয়েও কেন সহজে নষ্ট হয় প্রেম?

ইদানিং সোশ্যাল মিডিয়ার বদৌলতে সম্পর্কগুলো অনেক বেশি লোক দেখানো হয়ে গেছে। রাজকীয়ভাবে প্রপোজ করতে হবে, প্রতি জন্মদিনে বড় করে সারপ্রাইজ দিতে হবে, দামী গিফট দিতে হবে, নতুন নতুন জায়গায় ঘুরতে গিয়ে সেলফি দিতে হবে ইত্যাদি নানা ছকে বাঁধা পড়ে গেছে সম্পর্কগুলো।

আবেগের চাইতে চাকচিক্যের দাম বেশি এখন। যেন এগুলোই এখন প্রেমের নিয়ম। এই নিয়মে বাঁধা পরলেই সর্বনাশ!

বিজ্ঞাপন

রিলেশনশিপ কাউন্সিলর কেলি হফম্যান বলেছেন, ডেটিং এর ক্ষেত্রে কোনো নিয়ম বা সূত্র মেনে চলা উচিত নয়। এসব নিয়ম থেকে বরং সাবধান থাকাই ভালো। তার মতে সম্পর্কের ক্ষেত্রে লোক দেখানো কিংবা গদবাধা নিয়মকানুনে মেকি হয়ে যায় প্রেম।  কাউকে ভালোবাসার ক্ষেত্রে মেকি যে কোনো বিষয়ই ক্ষতিকর।

বিজ্ঞাপন

শেখানো নিয়মে চলতে গিয়ে মনের অনুভূতি হারিয়ে যায়। প্রেমের সম্পর্কে ভালো থাকার পূর্ব শর্ত হলো মনের অনুভূতিতে সাড়া দেয়া। তাই প্রেমে পড়লে কোনো নিয়মের খাঁচায় বন্দি না হয়ে নিজে কী চাচ্ছেন, সেটা বোঝার চেষ্টা করা উচিত। নাহলে কিছুদিন ভালো লাগার পরেই একঘেয়ে হয়ে যাবে সম্পর্ক।

সম্পর্কের ক্ষেত্রে শেখানো নিয়ম অনুসরণ করতে গেলে অনুশোচনায় ভুগতে হয়। দুজনের একটু ঝামেলা হলেই মনে হয় ‘এটা করিনি’, ‘ওটা করিনি।’ ফলে হীনমন্যতা তৈরি হয়। এতে জটিলতা আরও বাড়ে।

তাই, কেলি হফম্যান পরামর্শ দিয়েছেন যে প্রেমের ক্ষেত্রে নিজের মনের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী হতে হবে। কোনো সম্পর্কে দোটানা থাকলে সেটার ভীত দুর্বল হয়ে যায় খুব দ্রুত। এছাড়াও সম্পর্কের সব বাধা-বিপত্তি অতিক্রম করার সামর্থ্য থাকতে হবে। আর যদি মনে হয়, যাকে ভালোবাসেন তিনি আপনার জীবনে ক্ষতিকর প্রভাব ফেলছেন, তাহলে অতি সত্ত্বর সেই সম্পর্ক থেকে সরে আসার মনোবল থাকতে হবে। কাটু

Bellow Post-Green View