চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সমর্থকদের শান্ত থাকতে বলেও অভিশংসন নিয়ে ‘চুপ’ ট্রাম্প

যুক্তরাষ্ট্রের আইনসভা কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদে অভিশংসিত হওয়ার পর এক ভিডিওবার্তা দিয়েছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। 

সেই ভিডিওবার্তায় সমর্থকদের শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। তবে অভিশংসন নিয়ে কোনো মন্তব্য করেননি।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

স্থানীয় সময় বুধবার ওভাল অফিসের ডেস্কের পেছনে বসে রেকর্ড করা ভিডিওবার্তায় ট্রাম্প বলেছেন, ‘আমার কোনো সত্যিকারের সমর্থক রাজনৈতিক সহিংসতা ঘটাবে না। কোনো সত্যিকারের সমর্থক আইনের অনুশাসনকে অশ্রদ্ধা করবে না অথবা মহান যুক্তরাষ্ট্রের পতাকার অসম্মান করবে না।’

‘‘যারা আমাদের এজেন্ডাতে বিশ্বাস করে, তারা দেশের উত্তেজনা প্রশমনে ও মেজাজ শান্ত করতে কাজ করবে এবং দেশে শান্তির প্রচারে সহায়তার উপায়গুলি ভাবতে সাহায্য করবে।’’

ভিডিওতে তিনি আরও বলেন, ‘সম্প্রতি মুক্তবাকের উপর আঘাত দেখা যাচ্ছে। আমাদের নাগরিকদের সেন্সর করা, বাতিল করা ও কালো তালিকাভুক্ত করা ভুল এবং সেগুলো ভয়ঙ্করও। এখন আমাদের একজনের অন্যজনকে চুপ না করিয়ে বক্তব্য শোনা উচিত।’

ক্ষমতা থেকে বিদায়ের মাত্র ১ সপ্তাহ আগে লজ্জাজনকভাবে দ্বিতীয়বারের মতো অভিশংসিত হতে হয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৪৫তম প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে।

বিজ্ঞাপন

ক্যাপিটল ভবনে ট্রাম্প সমর্থকদের তাণ্ডবে উস্কানির দায়ে বুধবার কয়েক ঘণ্টার বিতর্ক শেষে প্রস্তাবের পক্ষে ভোট পড়ে ২৩২ এবং বিপক্ষে ১৯৭টি। ডেমোক্র্যাটিক পার্টির আনা অভিশংসন প্রস্তাবে সমর্থন দেন ১০ রিপাবলিকান নেতাও।

গত বুধবার কংগ্রেসে জো বাইডেনের জয়ের স্বীকৃতি দেবার সময় ট্রাম্প সমর্থকরা ক্যাপিটল ভবনে হামলা চালালে পাঁচজন নিহত হয়।

ওই হামলার ঠিক আগে ট্রাম্পের ভাষণ সমর্থকদের উস্কে দেয় বলে সমালোচনা ওঠে। এই অবস্থায় প্রেসিডেন্ট পদে দায়িত্ব পালনের অযোগ্য ঘোষণা করে ট্রাম্পের হাত থেকে ক্ষমতা নিতে ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের প্রতি আহ্বান জানায় কংগ্রেসের ডেমোক্র্যাট সদস্যরা।

সেজন্য যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধানের ২৫তম সংশোধনী প্রয়োগের প্রস্তাব দেওয়া হয়। কিন্তু পেন্স সেই আবেদনে সাড়া না দিলে অভিশংসনের প্রস্তাব তোলেন ডেমোক্র্যাটরা।

প্রতিনিধি পরিষদে ট্রাম্প অভিশংসিত হলেও তিনি স্বপদে বহাল থাকবেন। সিনেটে প্রস্তাবটি পাস না হওয়ায় তাকে পদ ছাড়তে হচ্ছে না। ২০ জানুয়ারির আগে সিনেট অধিবেশন বসছে না বলে আগেই জানিয়েছেন সিনেট নেতা মিচ ম্যাককনেল। আগামী ২০ জানুয়ারি প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিবেন জো বাইডেন।

যুক্তরাষ্ট্রের ৪৫তম প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগে ২০২০ সালে একবার প্রতিনিধি পরিষদে অভিশংসিত হয়েছিলেন। তবে সে দফায় সিনেটে ভোটাভুটিতে তার পদ রক্ষা হয়।