চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সবার আগে সেমিফাইনালে বাংলাদেশ

ভারতের সঙ্গে ড্র করে অনূর্ধ্ব-১৮ সাফ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের সেমিফাইনালে উঠে গেছে বাংলাদেশ। সোমবার নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ভারতের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করেও সবার আগে সেরা চারে পা রাখে পিটার টানারের শিষ্যরা।

গত শনিবার শ্রীলঙ্কাকে ৩-০ গোলে হারিয়ে মিশন শুরু করেছিল বাংলাদেশ। তবে এদিন প্রতিপক্ষে জালে বল জড়াতে পারেননি ফাহিম-হৃদয়-তানভীররা।

বিজ্ঞাপন

নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুতে ম্যাচের প্রথমার্ধে দাপট দেখায় বাংলাদেশ। একাধিকবার গোলের সুযোগ তৈরি করে তারা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত জাল খুঁজে পায়নি। পাল্টা আক্রমণে বাংলাদেশ রক্ষণে বেশ কয়েকবার অবশ্য আতঙ্ক ছড়িয়েছে ভারতও।

ম্যাচের ২৫ মিনিটে সবচেয়ে ভালো এবং সহজ সুযোগটি পায় বাংলাদেশ। কিন্তু সেটা কাজে লাগাতে ব্যর্থ হয়। প্রথমার্ধের শেষ বাঁশির ঠিক আগে আরেকবার সুযোগ আসে, সেবারও তা নষ্ট হওয়ার তালিকাতেই।

বিজ্ঞাপন

শূন্য স্কোরবোর্ড নিয়ে দ্বিতীয়ার্ধে মাঠে নেমে লিড নিতে মরিয়া হয়ে ওঠে দুদলই। এই অর্ধে অবশ্য বেশি দাপট দেখায় ভারত। অন্তত তিনবার বাংলাদেশের জালের কাছাকাছিও গিয়েছিল তারা। এরমধ্যে দুবার দলকে বাঁচিয়ে দেন গোলকিপার শান্ত কুমার রায়।

ভারতের আক্রমণ রুখে দিয়ে পাল্টা আক্রমণে যায় বাংলাদেশ। কিন্তু ভারতীয়দের রক্ষণ জমাট ভাঙতে পারেনি তারা। দুই দলের পাল্টাপাল্টি আক্রমণের মধ্যদিয়েই গোলশূন্যভাবে শেষ হয়ে যায় ম্যাচ।

ড্র করলেও বাংলাদেশের কোনো ক্ষতি হয়নি। এক জয় ও এক ড্র নিয়ে তাদের শেষ চার নিশ্চিত হয়ে গেছে। দুই ম্যাচে বাংলাদেশের পয়েন্ট ৪। অর্থাৎ, গ্রুপের শীর্ষে রয়েছে লাল-সবুজের দল। গোল ব্যবধানও ভালো। প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে ৩-০তে হারানোয় শক্ত অবস্থানেই আছে বাংলাদেশ।

অন্যদিকে, ভারতের ছিল এটি প্রথম ম্যাচ। এক ম্যাচে তারা পয়েন্ট পেল একটি। গ্রুপের অন্য দল শ্রীলঙ্কা প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের কাছে হেরে যাওয়ায় তারা কোনো পয়েন্ট পায়নি।

গ্রুপের শেষ ম্যাচে ভারত যদি শ্রীলঙ্কাকে হারায়, তাহলে তাদের পয়েন্ট হবে চার। সেই সঙ্গে ভারতের সেমি নিশ্চিত হয়ে যাবে। আর যদি শ্রীলঙ্কা জেতে, তাহলে তারা চলে যাবে সেমিতে। ওই ম্যাচে ভারত যদি চার গোলের কম ব্যবধানে জেতে, তাহলে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হবে বাংলাদেশই।

Bellow Post-Green View