চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সন্মানহানির ভয়ে তেলেগু অভিনেত্রীর আত্মহত্যা!

চলতি বছরে একের পর এক তারকা বেছে নিচ্ছেন আত্মহত্যার পথ। এবার সে পথই বেছে নিলেন জনপ্রিয় তেলেগু টিভি সিরিয়াল অভিনেত্রী কোন্ডাপাল্লি শ্রাবনী। পুলিশের কাছে এমনই অভিযোগ অভিনেত্রীর পরিবারের।

মঙ্গলবার রাতে অভিনেত্রীর হায়দরাবাদের বাড়িতে তার নিজ ঘর থেকে তাকে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। পারিবারিক সূত্র বলছে, দেবরাজ রেড্ডি নামের এক ব্যক্তির ব্ল্যাকমেইলের চাপে পড়েই হয়ত এমনটা করেছেন শ্রাবনী।

বিজ্ঞাপন

অভিনেত্রীর পরিবার আরো জানায়, বেশ কিছুদিন যাবত দেবরাজ রেড্ডি নামের এক ব্যক্তি শ্রাবনীকে ব্ল্যাকমেইল করছিলেন তার ব্যক্তিগত কিছু ছবি ফাঁস করে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে। এই দেবরাজ মূলত অন্ধ্র প্রদেশের পূর্ব গোদাবরী ডিস্ট্রিক্টের কাকিনাড়ার বাসিন্দা। যার সাথে টিকটকের মাধ‍্যমে অভিনেত্রীর আলাপ হয়।

সেসময় ওই ব্যক্তি শ্রাবনীকে সিরিয়ালে সুযোগ করে দেওয়ার অনুরোধ জানান। যার পরিপ্রেক্ষিতে তাকে একটি সিরিয়ালে সুযোগও দিয়েছিলেন অভিনেত্রী। তাদের সম্পর্ক আরো ঘনিষ্ট হয় তখন।

তবে অভিনেত্রীর মায়ের অভিযোগ, শ্রাবনী ঘুমিয়ে থাকলে তার ফোন ঘাটত ওই ব‍্যক্তি। তার এমন নিগ্রহের জন‍্য চিকিৎসকের পরামর্শ নিচ্ছিলেন অভিনেত্রী। এরপর ওই ব‍্যক্তির থেকে দূরত্ব বাড়াতে শুরু করলে গোপন ছবি ফাঁস করে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ব্ল‍্যাকমেইল করতে শুরু করেন দেবরাজ।

এমনকি ছবিগুলি ডিলিট করার জন‍্য অভিনেত্রীর কাছে ১ লক্ষ টাকাও চেয়েছিলেন দেবরাজ। যার ভেতর ৩০ হাজার টাকা অনলাইনে ও বাকি ৭০ হাজার দেওয়া হয় ক‍্যাশে। কিন্তু তারপরেও পিছু ছাড়েনি সেই ব্যক্তি।

অবশেষে বাধ‍্য হয়ে গত ২২ জুন পুলিশে অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশও সতর্ক করে ওই ব‍্যক্তিকে। কিন্তু তাতেও সে কোন পাত্তা দেয়না। বরং বিরক্ত করেই যাচ্ছিলো শ্রাবনীকে। আর সেই চাপই সহ্য না করতে পেরেই সন্মানহানির ভয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নিলেন শ্রাবনী।

তবে এই আত্মহত্যার পিছনে অন্য আর কোন কারণ রয়েছে কিনা তাও খতিয়ে দেখছেন পুলিশ।