চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সন্দ্বীপ উপকূলে ১১ রোহিঙ্গা আটক

সন্দ্বীপের পশ্চিম উপকূলীয় এলাকা রহমতপুর থেকে মঙ্গলবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে নারী ও শিশুসহ ১১ রোহিঙ্গাকে আটক করেছে স্থানীয় জনগণ।

তারা ভাসানচর রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে দালালের মাধ্যমে লক্ষাধিক টাকার বিনিময়ে জেলে নৌকায় করে সন্দ্বীপ উপকূলে পালিয়ে আসেন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

আটক রোহিঙ্গাদের সঙ্গে আলাপ করে জানা গেছে, তারা সন্দ্বীপ হয়ে কক্সবাজারের বালুখালী ক্যাম্পে ফিরে যাওয়ার উদ্দেশে ভাসানচর থেকে পালিয়ে এসেছে। পালিয়ে আসাদের মধ্যে আছে তিন শিশু, ছয় নারী ও দুজন যুবক।

বিজ্ঞাপন

পালিয়ে আসা দলে একই পরিবারের ৯ সদস্য রয়েছেন। এদের একজন হলেন রহিমা খাতুন। তিনি এ প্রতিবেদককে বলেন, ভাসানচর ক্যাম্প তাদের ভালো লাগে না। তাই তারা পালিয়ে এসেছেন। স্থানীয় জনতা তাদের ধরে এনে রহমতপুর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে রেখেছেন।

পরে সন্দ্বীপ কোস্টগার্ড কন্টিনজেন্ট কমান্ডার এ প্রতিবেদককে বলেন, বিষয়টি নিয়ে তারা ভাসানচর নৌবাহিনী কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলাপ করেছেন।

তারা আটক রোহিঙ্গাদের সন্দ্বীপ থানায় হস্তান্তর করতে বলেছেন। সন্দ্বীপ থানার মাধ্যমে পুনরায় তাদের ভাসানচর রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ফেরত পাঠানো হবে।

উল্লেখ্য, ইতিপূর্বে প্রথমে আজিমপুরে একজন এবং তার কয়েক দিনের মধ্যে মাইটভাঙা এলাকা থেকে আরও তিন রোহিঙ্গাকে সন্দ্বীপের স্থানীয় মানুষ আটক করেছিল; তাদেরও সন্দ্বীপ থানা পুলিশের মাধ্যমে ভাসানচর ক্যাম্পে ফেরত পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে।