চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সতীর্থকে ‘পিটিয়ে নিয়ে’ গ্রেপ্তার পিএসজি মিডফিল্ডার

প্যারিস সেইন্ট জার্মেইন নারী দলের তারকা মিডফিল্ডার আমিনাটা ডিয়াল্লোকে গ্রেপ্তার করেছে দেশটির পুলিশ বিভাগ। তাকে থানা হেফাজতে রাখার খবর নিশ্চিত করেছে পিএসজি কর্তৃপক্ষ। অভিযোগ উঠেছে, ক্লাব ও জাতীয় দলের একজন সতীর্থকে ভাড়াটে দিয়ে পিটিয়ে আহত করার।

পিএসজি আক্রমণের শিকার হওয়া ফুটবলারের নাম প্রকাশ না করলেও সূত্রের বরাতে ইএসপিএন এফসি জানিয়েছে, ডিয়াল্লোর সেই সতীর্থের নাম খেইরা হামরাওই। দুজনেই মিডফিল্ডার।

৩১ বর্ষী হামরাওই ও ২৬ বর্ষী ডিয়াল্লো কেবল ক্লাবেই নন, ফ্রান্স দলেও সতীর্থ। পিএসজির আরও দুজন সতীর্থের সাথে ডিয়াল্লোর গাড়িতে করে যাচ্ছিলেন হামরাওই। সপ্তাহখানেক আগে ওইদিন ক্লাবের ডিনার পার্টি থেকে ফিরছিলেন তারা।

বিজ্ঞাপন

গাড়ি ডিয়াল্লোর বাড়ির সামনে থামলে কালো মাস্কে মুখ ঢাকা দুজন ব্যক্তি লোহার রড হাতে হাজির হন। তারা হামরাওইকে টেনে-হিঁচড়ে গাড়ি থেকে নামান। অন্তত মিনিট দুই হামরাওইর পায়ের দিকে রড দিয়ে দেদার পিটিয়ে স্থান ত্যাগ করেন।

হামরাওইকে দ্রুত হাসপাতালে নেয়া হয়। তার পা বাজেভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। যদিও ক্যারিয়ার শঙ্কায় পড়ে যাওয়ার মতো কোনো চোট পরিস্থিতি হয়নি। তবে দুদিন আগে পিএসজির হয়ে নিজের শততম ম্যাচে নামতে পারেননি। রিয়াল মাদ্রিদ নারী দলের বিপক্ষে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচে নেমেছিল লা প্যারিয়ানরা।

পিএসজি ও ফ্রান্স দলে জায়গা পাওয়া নিয়ে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা চলে হামরাওই ও ডায়াল্লোর। দুজনেই ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার। সতীর্থকে পিটিয়ে নিয়ে নিজে অবশ্য নিরাপদে রিয়ালের বিপক্ষে শুরুর একাদশে নেমেছিলেন ডিয়াল্লো, উপভোগ করেছেন ৪-০ গোলের জয়। তারপর হলেন গ্রেপ্তার।

বিজ্ঞাপন