চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘সচেতনতার অভাবে ক্যান্সারে মৃত্যুহার বাড়ছে’

ক্যান্সার প্রতিরোধে সচেতনতা বৃদ্ধিতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) পাবলিক হেলথ অ্যান্ড ইনফরমেটিক্স বিভাগের উদ্যোগে ‘বিশ্ব ক্যান্সার দিবস-২০১৯’ পালিত হয়েছে।

দিবসটি পালন উপলক্ষে সোমবার বেলা ১১টায় পাবলিক হেলথ এন্ড ইনফরমেটিক্স বিভাগ থেকে একটি র‌্যালি বের হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের গুরুত্বপূর্ণ স্থান প্রদক্ষিণ করে জাবি স্কুল এন্ড কলেজ চত্বরে গিয়ে শেষ হয়।

বিজ্ঞাপন

র‌্যালি শেষে বেলা ১২টায় জাবি স্কুল এন্ড কলেজের অডিটোরিয়ামে ক্যান্সার দিবস উপলক্ষে ‘ক্যান্সার সচেতনতা বিষয়ক’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

‘আই এম এন্ড আই উইল’ স্লোগানকে সামনে রেখে ‘সাউথ এশিয়া সেন্টার ফর মেডিকেল ফিজিক্স অ্যান্ড ক্যান্সার রিসার্চ সেন্টারের সহযোগিতায় সচেতনতামূলক শোভাযাত্রা এবং সেমিনার আয়োজন করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘পাবলিক হেলথ ফোরাম’।

বিজ্ঞাপন

পাবলিক হেলথ অ্যান্ড ইনফরমেটিক্স বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. রুহুল ফুরকান সিদ্দিকের সভাপতিত্বে সেমিনারে বক্তারা বলেন, বিশ্বব্যাপী মাদক, ধূমপান ও তামাকজাত পণ্যের নিয়ন্ত্রণ না করার ফলে ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ছে। সচেতনতা ও শিক্ষার অভাবে ক্যান্সারে মৃত্যুহার বৃদ্ধি পাচ্ছে। বক্তারা ক্যান্সার প্রতিরোধে সবাইকে খাদ্যাভাস ও নিয়মিত শরীর চর্চার আহ্বান জানান।

উদ্বোধনী বক্তব্যে মুগধা মেডিকেল কলেজের স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. মুনমুন ইসলাম বলেন, ‘সচেতনতা ও শিক্ষার অভাব এবং অর্থনৈতিক অবস্থাকে বাংলাদেশে ক্যান্সার রোগে মৃত্যুর হার বৃদ্ধি পাচ্ছে।’

সভাপতির বক্তব্যে অধ্যাপক ড. রুহুল ফুরকান সিদ্দিক বলেন,‘ক্যান্সার একটি মারাত্মক ও ভীতিকর রোগ। সারা বিশ্বে মানুষের মৃত্যুর একটি অন্যতম কারণ ক্যান্সার। যেসব কারণে ক্যান্সার হয় তার ঝুঁকিগুলোর মধ্যে ধূমপান, পান-জর্দা-তামাকপাতা খাওয়া, সবজি, ফলমূল ও আঁশযুক্ত খাবার কম খাওয়া, শারীরিক ব্যায়াম না করা, শারীরিক স্থূলতা বা বেশি ওজন, আলট্রাভায়োলেট রশ্মি, এক্সে রশ্মি প্রভৃতি।’

সেমিনারে বিশ্ববিদ্যালয়ের পাবলিক হেলথ এন্ড ইনফরমেটিক্স বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. তাজউদ্দিন সিকদার, সহযোগী অধ্যাপক জনাব শবনম নাহার, সহযোগী অধ্যাপক জনাব জেবুন্নেসা জেবা, প্রভাষক ডা. সাবরীনা মুনাজিলীন, মোঃ মাহমুদুর রহমান, মো. আল-আমিন মাহফুজুর রহমান’সহ বিভিন্ন বিভাগের প্রায় চার শতাধিক শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন।