চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘সঙ্গিনী’ ছাড়া তাদের ঈদ

লন্ডন থেকে: বিশ্বকাপ শুরুর আগে বিয়ের ধুম পড়ে গিয়েছিল বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের মাঝে। নিউজিল্যান্ড সফর শেষে দেশে ফিরেই বিয়ের পিঁড়িতে বসেন সাব্বির রহমান। মোস্তাফিজুর রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজও শুরু করেন জীবনের দ্বিতীয় ইনিংস। সদ্য বিবাহিত ত্রয়ী আছেন বিশ্বকাপ দলে। বিয়ের পর তাদের প্রথম ঈদ কাটছে লন্ডনে, জীবনসঙ্গীকে ছাড়াই।

অন্য আট-দশটা দিন থেকে খুব বেশি আলাদা করার উপায় নেই ঈদের আগের লন্ডন নগরী। চাঁদরাতে প্রবাসী বাঙালিদের মাঝে কিছুটা ব্যস্ততা দেখা গেছে কেনাকাটায়। গাড়ি নিয়ে গ্রিন স্ট্রিটে ছুটে গেছেন অনেকে। বিশেষ উপলক্ষ মানেই সেখানে জড়ো হওয়া।

বিজ্ঞাপন

সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে ইংল্যান্ডে মঙ্গলবার পালিত হবে মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসবের একটি ঈদুল ফিতর। সোমবার বিকেলে বাংলাদেশ দলের হোটেল পার্ক প্লাজা রিভার ব্যাঙ্কে গিয়ে দেখা গেল শুনশান নীরবতা। সাউথ আফ্রিকাকে হারানোর পর দল পেয়েছে একদিনের বিশ্রাম। ছিল না অনুশীলন ব্যস্ততা। বিকেলে মোস্তাফিজ ও মিরাজ ঘুরতে বেরিয়েছিলেন। কয়েকজন পাঞ্জাবি কিনে ফিরেছেন হোটেলে।

তবে তারা ঈদের নামাজ কোথায় পড়বেন সেটি নিয়ে অন্ধকারে বিশ্বকাপ কাভার করতে আসা বাংলাদেশি সাংবাদিকরা। দলের পক্ষ থেকে জানানো হয়নি কিছুই। টিম ম্যানেজমেন্টের একাধিক সূত্রে জানতে চেয়ে উত্তর মিলেছে ‘ঠিক হয়নি এখনও’।

বিজ্ঞাপন

নামাজের ব্যাপারটি গোপন রাখার যে নিরাপত্তাজনিত কারণে সেটি বুঝতে বাকি নেই কারোরই। দুই মাস আগে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে বন্দুকধারী সন্ত্রাসীর নৃশংস হত্যাযজ্ঞ চালানোর ভয়ঙ্কর স্মৃতি এখনও তাজা। সেই আল নূর মসজিদে জুমার নামাজ পড়তে যাওয়ার কথা ছিল বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের। একটু দেরি হওয়ায় সেদিন বড় বাঁচা বেঁচে যায় টিম টাইগার্স। নিরাপত্তা নিয়ে তাই খুবই সতর্ক আইসিসি।

বাংলাদেশ দলের ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজন টিম হোটেলে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে বলেন, ‘আসলে আমরাও এখনো জানি না কোথায় ঈদের নামাজ পড়ব। আইসিসির নিরাপত্তার কড়াকড়ি আছে। তারা সম্ভবত এটা আগে থেকে জানাতে চায় না। আমরা জানতে চেয়েছি, কিন্তু নিরাপত্তা বিভাগ থেকে এখনো কিছু বলেনি।’

লন্ডনে সবচেয়ে বড় ঈদের জামাত হয় আট হাজার মুসল্লি ধারণক্ষমতা সম্পন্ন ইস্ট লন্ডন মসজিদে। এখানে প্রবাসী বাঙালির সংখ্যা অগণিত। তাদের অনেকেই আশা নিয়ে অপেক্ষায় টাইগার ক্রিকেটাররা এখানেই ঈদের জামাতে অংশ নেবেন। মসজিদটিতে মোট পাঁচটি জামাত হবে। প্রথমটি সকাল সাড়ে সাতটায় (বাংলাদেশ সময় দুপুর সাড়ে ১২টা)।

অন্য একটি সূত্রে অবশ্য জানা গেছে, টেমস নদীর তীরে টিম হোটেলের সবচেয়ে কাছের যে মসজিদ সেখানেই ঈদের নামাজ সেরে নেবেন ক্রিকেটাররা। বিদেশ বিভূঁইয়ে ক্রিকেটাররা নিজেদের মধ্যে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে দুপুরে ছুটবেন দ্য ওভালে। বুধবার নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে নামার আগে চলবে দীর্ঘ অনুশীলন সেশন।

কিউই ম্যাচটা দিবা-রাত্রির হওয়ায় কৃত্রিম আলোয় নিজেদের ঝালিয়ে নেবেন মাশরাফী-সাকিবরা। তার আগে মাঠে যাওয়ার বাসে ওঠার আগে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হবেন সাউথ আফ্রিকার বিপক্ষে শুরুর ম্যাচে ব্যাটে ঝড় তোলা সৌম্য সরকার।

Bellow Post-Green View