চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সংস্কৃতি খাতে বরাবরই আমাদের দাবী উপেক্ষিত: গোলাম কুদ্দুছ

বাজেট: সংস্কৃতি খাতে বরাদ্দ ৫৭৯ কোটি টাকা

সংস্কৃতি খাতে বরাবরই আমাদের দাবী উপেক্ষিত: বললেন সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুছ

বর্তমান সরকার নিজেদের সংস্কৃতিবান্ধব বলে আসলেও প্রস্তাবিত বাজেটে প্রতিবারের মতো এবারও সংস্কৃতি খাতকে অবহেলিত করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন সংস্কৃতি অঙ্গনের অভিভাবক সংগঠন সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুছ।

বাজেট পরবর্তী তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় সংস্কৃতি খাতে সরকারের প্রস্তাবিত বাজেটকে ‘গতানুগতিক বাজেট’ বলেও মন্তব্য করেছেন।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (১১ জুন) নতুন প্রস্তাবিত জাতীয় বাজেটে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়কে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে ৫৭৯ কোটি টাকা। যা গত অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটের তুলনায় ৭৮ কোটি টাকা বেশি। গত অর্থবছরের এ খাতে বাজেট ছিলো ৫৭৬ কোটি, এবং সংশোধিত বাজেট ছিল ৫০১ কোটি টাকা।

বিজ্ঞাপন

সংস্কৃতি খাতের বাজেট নিয়ে নিজেদের হতাশার কথা জানিয়ে চ্যানেল আই অনলাইনকে এই সংগঠক বলেন, সংস্কৃতি খাতে যে বাজেট এবার প্রস্তাব করা হয়েছে, তাতে গেল বছরের মতো এবারও আমরা হতাশ। গত অর্থবছরের তুলনায় কিছুটা হয়তো বেড়েছে, কিন্তু আমাদের দীর্ঘদিনের দাবি সংস্কৃতি খাতে মোট বাজেটের ১ শতাংশ বরাদ্দ দেয়া।

সরকার একদিকে বলছে আমরা অসাম্প্রদায়িক চেতনায় উদ্বুদ্ধ সংস্কৃতি বান্ধব জাতি, মানুষে মানুষে মৈত্রী বন্ধন গড়ে তুলতে চাই, কিন্তু বাস্তবতা হলো বাজেটে সরকারের সেই সব কথার প্রতিফলন এবারও ঘটেনি।

তবে করোনা পরিস্থিতিতে এই বাজেটকে বিশেষ বিবেচনায় রাখছেন, এমনটাও বললেন এই সংগঠক। তিনি বলেন, এবার হয়তো করোনা পরিস্থিতির জন্য জাতীয় বাজেট অন্যরকম ভাবে উপস্থাপিত হয়েছে, কিন্তু আমাদের সংস্কৃতির জন্য সব সময়ই একইরকম হতাশার। করোনার কারণে এবারের বাজেটকে বিশেষ দৃষ্টিতে দেখছি, তবু আমরা মনে করি সংস্কৃতি খাতে আরো বেশি বাজেট বরাদ্দ দেয়া উচিত ছিলো। কিন্তু ভবিষ্যতে আমাদের প্রস্তাবনা থাকবে, জাতীয় বাজেটে সংস্কৃতি খাতে কমপক্ষে মোট বাজেটের এক শতাংশ বরাদ্দ দেয়া। কারণ আমরা মনে করি, যে কোনো পরিস্থিতিতে মানুষকে সচেতন করতে হলেও সংস্কৃতির বিকল্প কিছু নাই।