চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শ্রীলঙ্কার কঠিন শর্তে অনিশ্চিত এইচপি দলের সফর

চলতি মাসের শেষ সপ্তাহে জাতীয় দলের সঙ্গে হাই-পারফরম্যান্স (এইচপি) দলেরও শ্রীলঙ্কা সফরে যাওয়ার কথা। সে অনুযায়ী চলছে প্রস্তুতি। শেষ মুহূর্তে আসন্ন সফর নিয়ে দোটানায় পড়েছে বিসিবি।

আয়োজক দেশের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নীতিমালায় উল্লেখ করা হয়েছে ১৪ দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে সফরকারী দলের ক্রিকেটারদের। এ সময়ে করা যাবে না অনুশীলনও।

বিজ্ঞাপন

এ ব্যাপারে বিসিবি পরিচালক ও এইচপি ইউনিটের চেয়ারম্যান নাঈমুর রহমান দুর্জয় বললেন, ‘দুই বোর্ড এখন পর্যন্ত একমত হয়েছে ৭ দিনের কোয়ারেন্টাইন। শ্রীলঙ্কান স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা বলছে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন। একই সাথে আগে যেটা ছিল কোয়ারেন্টাইনে থাকা অবস্থায় আমরা অনুশীলন করতে পারবো কিন্তু এখন সেটাতেও নিষেধ আসছে।’

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

‘কাজেই আমরা আমাদের পর্যবেক্ষণ তাদের জানাচ্ছি। এটা শ্রীলঙ্কা বোর্ডের নিয়ন্ত্রণে না, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের, অনেক ব্যাপার আছে। সফরে সদস্য সংখ্যাও কমানোর চিন্তা ভাবনা করছে। সেটাও একটা ইস্যু।’

জাতীয় ও এইচপি দলের খেলোয়াড়, কোচ, সাপোর্ট স্টাফ, নির্বাচক মিলে ৬৫ জনের শ্রীলঙ্কা সফরে যাওয়ার কথা। কিন্তু শেষ মুহূর্তে বিসিবিকে সদস্য সংখ্যা কমিয়ে আনার কথা বলেছে দেশটি।

যদি সফরে শেষ পর্যন্ত ক্রিকেটারদের সংখ্যা কমাতেই হয়, তাহলে কি হবে? এমন প্রশ্নে দুর্জয় বললেন, সেক্ষেত্রে অবশ্যই জাতীয় দল প্রাধান্য পাবে। যেহেতু সফরটি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ।

১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হলে জাতীয় দলও সমস্যায় পড়বে। কেননা এখনো মিরপুরে দলীয় অনুশীলন শুরু করতে পারেননি টাইগাররা। লঙ্কায় গিয়ে এইচপি দলের সঙ্গে বেশ কয়েকটি অনুশীলন ম্যাচ খেলার কথা আছে মুমিনুলদের।