চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শ্রাবন্তীর বিয়ে নিয়ে যা বললেন প্রাক্তন স্বামী

পনের বছর সংসার করার পরে রাজীব-শ্রাবন্তীর বিচ্ছেদ হয়েছে প্রায় দুই বছর হচ্ছে। এর মাঝে ঘটেছে অনেক কিছু। সময়ের সাথে কমেছে সম্পর্কের তিক্ততা। রোশানের সঙ্গে শ্রাবন্তীর বিয়ের খবরটাও জেনেছেন রাজীব ইতোমধ্যেই। শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রাক্তন স্ত্রীকে। শ্রাবন্তী তৃতীয় বিয়ে করলেও এখনও বিয়ে করেননি রাজীব। শ্রাবন্তীর বিয়ে নিয়ে কলকাতা টাইমসে একটি সাক্ষাতকার দিয়েছেন তিনি। সাক্ষাতকারটি হুবহু অনুবাদ করে দেয়া হলো।

বিজ্ঞাপন

পনের বছর সংসারের পর ২০১৭ সালে বিচ্ছেদ হয়েছিল। আপনি কি জানতেন রোশন সিং এর সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধছেন শ্রাবন্তী?
আমি ধারাবাহিক ‘নজর’ এর শুটিং নিয়ে ব্যস্ত ছিলাম। পনের দিন আগে আমার সহকারী জানিয়েছিলেন যে শ্রাবন্তী প্রেম করছে রোশনের সঙ্গে। আমি শুনেছিলাম তারা বিয়ের পরিকল্পনা করছে। তবে তারিখ জানতাম না।

খবরটি জানার পর কথা হয়েছিল শ্রাবন্তীর সঙ্গে?
না, তবে আমি তাকে শুভেচ্ছা জানাতে চাই এবং তার জীবনের সুখ ও শান্তি কামনা করি। ও খুবই ভালো এখন মানুষ এবং ভালো নায়িকা। বিয়ের আগে তার সঙ্গে এক বছর প্রেম করেছিলাম। আমাদের ছেলে ঝিনুক তার সঙ্গে থাকে। আমি তার শান্তির জীবন কামনা করি। তাতে আমাদের সন্তান ভাল থাকবে। আমার জন্য আসল বিষয় হলো আমাদের সন্তানের ভাল থাকা।

আপনাদের বৈবাহিক জীবনে অনেক ভালো এবং খারাপ সময় গিয়েছে। শ্রাবন্তীকে সেই অভিজ্ঞতা থেকে কোনো পরামর্শ দিতে চান?
শ্রাবন্তী খুবই আবেগপ্রবণ। আমি চাই আবেগের বশবর্তী হয়ে কোনো সিদ্ধান্ত যেন ও না নেয়। আমরা প্রাপ্তবয়স্ক, সেইভাবে যুক্তিসঙ্গত সিদ্ধান্ত নেয়া উচিত।

তৃতীয়বার বিয়ের পিঁড়িতে বসায় দুর্ভাগ্যবশত তাকে নিয়ে অনেক ট্রল করা হচ্ছে। এটাতো অনুচিত তাই না?
অবশ্যই উচিত নয়। জীবনে তো ট্রল কোনো ভূমিকা রাখে না। খুবই বাজে এবং রুঢ় কমেন্ট করা হচ্ছে। বিয়ে করা বা না করা তার ইচ্ছা। সবাই সুখী হতে চায়। বিয়ে ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। কেউ যদি তার সোলমেট খুঁজে পায়, সমাজের সেই সিদ্ধান্তে নাক গলানো উচিত নয়।

তারকাদের গোপনে বিয়ে করার ট্রেন্ড এখন আলোচনায়। কেউ মনে করেন গোপনীয়তা থাকা উচিত আবার কেউ মনে করেন উচিত নয়। আপনার কী মনে হয় এই ব্যাপারে?
আমি মনে করি তারকাদের ‘সিক্রেট’ রাখা কঠিন। একজন তারকা যদি লক্ষ্মী পূজায় মিডিয়াকে ঘরে ঢুকতে দেয়, তাহলে বিয়েতে মিডিয়াকে কীভাবে বাধা দিবে? প্রাইভেসি যদি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে থাকে তাহলে মিডিয়াকে কোনো ইভেন্টেই অনুমতি দেয়া উচিত নয়। শ্রাবন্তী তার সম্পর্কের ব্যাপারে কখনই মিডিয়ায় কথা বলতো না। তাই শ্রাবন্তী ও তার স্বামী যদি বিষয়টি গোপন রাখতে চায়, তাহলে তাদের সিদ্ধান্তটাকে আমাদের সম্মান করা উচিত।

শুনেছি আপনিও একজনের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছেন। বিয়ে কবে?
ঠিকই শুনেছেন। মিডিয়ার কেউ নয়। আগামী বছর বিয়ে করার সম্ভাবনা আছে।

Bellow Post-Green View