চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শ্যামল কান্তির ‘ফাঁসি চাই’

শিক্ষক এক মাস্তান এমপির কথায় কান ধরে উঠে বসেছেন, কারণ তার আত্মমর্যাদার ঘাটতি ছিল। প্রাণের বিমিময়ে তিনি যদি সম্মান রেখে যেতে পারতেন তাহলে ওই সময় বখাটে ছাত্ররাও শিখতে পারতো, শিক্ষকতা একটা সম্মানজনক পেশা। এই পেশার সম্মান রাখতে শিক্ষকরা প্রাণ দেন। তা না করে তিনি শিক্ষার্থীর সামনেই কান ধরে ওঠা-বসা করলেন।

যে শিক্ষক প্রাইভেট পড়ান সিক্স-সেভেনের ছাত্রদের হাতে সাময়িক-বার্ষিক পরীক্ষার প্রশ্ন তুলে দেন, বাসায় ছাত্রকে পরীক্ষার খাতায় লেখার সুযোগ করে দেন, তিনিই আবার শেখাচ্ছেন, অনেস্টি ইজ দ্যা বেস্ট পলিসি!

বরিশাল জিলা স্কুলের আরবি শিক্ষকের প্রশ্ন বিক্রির রেটটা ছিল দারুণ। ৩ মাস প্রাইভেট পড়লে মাসে ১শ করে ৩শ, পরীক্ষার আগে ২ মাস পড়লে দেড়’শ করে দুই মাসে তিন’শ। আর শুধু পরীক্ষার আগে ১ মাস পড়লে ৩’শ টাকা। আর পরীক্ষার আগের রাতে শুধু মিষ্টি নিয়ে গেলেই হবে, প্রশ্ন পেয়ে যাবে প্রিয় ছাত্ররা।

একটা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিজনেস ফ্যাকাল্টির কমিউনিকেশন ক্লাবে এক আলোচনায় বলেছিলাম, যারা করপোরেট জগতে কিছু করতে না পারে তারাই তোমাদের শিক্ষক হয়েছে। এরপর বিশ্ববিদ্যালয়টির সাথে আমার সম্পর্ক ছিন্ন হয়।

গুরুভিত্তিক শিক্ষায় গুরুর যে পেশাগত অহম ছিল, তা ধরে রাখতে পারেনি উপনিবেশী শিক্ষা ব্যবস্থা। আবারও তাহলে সেই গল্পটা বলতে হচ্ছে: ‘লক্ষ্মণ সেনের রাজ দরবার। হুড়মুড় করে ঢুকলেন ধনাঢ্য ব্যবসায়ীর সুন্দরী স্ত্রী মাধবী।

শ্লীলতাহানির অভিযোগ আনলেন খোদ রাজা লক্ষ্মণ সেনের শালা কুমার দত্তের বিরুদ্ধে। দরবার হলজুড়ে পিন পতন নিরবতা। নিরবতা ভাঙলেন রানি বল্লভা। মাধবীকে কলঙ্কিনী আখ্যা দিয়ে ভাইকে বাঁচানোর চেষ্টা করলেন। ক্ষমতার দাপটে মাধবীর চুলে মুঠি ধরে মাটিতে শুইয়ে দিলেন। বিচারপ্রার্থীর গলায় রানির পা। এবার গোটা দরবারের ভুলটা ভেঙে দিলেন রাজপণ্ডিত গোবর্ধন আচার্য। তার হস্তক্ষেপে ন্যায়বিচার পেয়েছিলেন মাধবী।’

লক্ষ্মণ সেনকে পালিয়ে যেতে হয়েছে। ন্যায়বিচারও পালিয়েছে। এখনতো পণ্ডিতদের গলায় পারা দিয়েই রানি হতে হয়! এখন শিক্ষকরাই বাদশাহ আলমগীরের ছেলের পা ধুয়ে দেন। স্কুলে এক শিক্ষককে দেখতাম, হোমিওপ্যাথ ডাক্তার আরিফুর রহমানের ছেলের সাথে এক রিকশায় স্কুলে আসতেন। কোনো ওষুধ কোম্পানির রিপ্রেজেন্টিটিভ না হতে পারলে ছেলেরা ডোনেশন দিয়ে এলাকার স্কুলে জয়েন করে। ‘দুনিয়ার অন্য কোথাও চাকরি না পাইয়া এখন বেকাররা শিক্ষক হয়!’ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকের বাজারের ব্যাগ টেনেও নাকি শিক্ষক হওয়া যায়! জাতি এদের কাছে কি শিখবে? কী শিখবে?

(এ বিভাগে প্রকাশিত মতামত লেখকের নিজস্ব। চ্যানেল আই অনলাইন এবং চ্যানেল আই-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে প্রকাশিত মতামত সামঞ্জস্যপূর্ণ নাও হতে পারে)

শেয়ার করুন: