চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শেয়ার কেলেঙ্কারিতে খালাস পাওয়া ৮ ব্যক্তিকে আত্মসমর্পণ করতে হবে

১৯৯৬ সালের বহুল আলোচিত শেয়ার কেলেঙ্কারির দুই মামলায় ট্রাইব্যুনলের রায়ে খালাস পাওয়া দুই কোম্পানির ৮ পরিচালককে এক মাসের মধ্যে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

ওই ৮ জন পরিচালক হলেন; হেমায়েত উদ্দিন আহমেদ, মোস্তাক আহমেদ সাদেক, সৈয়দ মাহবুব মুর্শেদ, শরিফ আতাউর রহমান, আহমেদ ইকবাল হাসান, এম. জে. আজম চৌধুরী, শহীদুল্লাহ ও প্রফেসর মাহবুব আহমেদ।

ট্রাইব্যুনলে রায়ের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এক্সচেঞ্জ কমিশনের করা আপিল শুনানির জন্য গ্রহণ করে মঙ্গলবার বিচারপতি মো. রইস উদ্দিনের হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

এই আদেশের কপি পাওয়ার ৩০ দিনের মধ্যে ওই ৮ জনকে আত্মসমর্পণ করতে বলা হয় আদেশে। তবে তারা আত্মসমর্পণ করলে তাদের জামিন বিবেচনার জন্য বিচারিক আদালতকে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। সেই সঙ্গে হাইকোর্ট এই মামলার নথিও তলব করেছেন।

বিজ্ঞাপন

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল শফিউল বশার ভাণ্ডারি। তার সঙ্গে ছিলেন সহকারি অ্যাটর্নি জেনারেল স্বপন কুমার দাস ও সৈয়দা সাবিনা আহমেদ মলি। আর এসইসির পক্ষে শুনানি করেন ছিলেন আইনজীবী এ এম মাসুম।

১৯৯৬ সালের  বহুল আলোচিত শেয়ার কেলেঙ্কারির  দুই মামলার গত ১ ফেব্রুয়ারি আট আসামিকে খালাস দেন শেয়ারবাজার বিষয়ক বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক আকবর আলী শেখ।

এইচএমএমএস ফাইন্যান্সিয়াল কনসালট্যান্সি অ্যান্ড সিকিউরিটিজ এবং সিকিউরিটিজ কনসালট্যান্টসের শেয়ার কেলেঙ্কারি মামলায় ওই ৮ পরিচালক খালাস পান।

তাদেরকে খালাস দেয়ার পর গত ২৫ মার্চ ট্রাইব্যুনালের ওই রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আপিল করে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন। সেই আপিল আজ শুনানির জন্য গ্রহণ করে আদেশ দেন হাইকোর্ট।

বিজ্ঞাপন