চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Partex Group

শেষ হলো শিরোনামহীনের ‘পারফিউম’-এর শুটিং

বিজ্ঞাপন

শিরোনামহীন-এর সিলভার জুবিলী তে ব্যান্ড রিলিজ করতে যাচ্ছে তাদের ষষ্ঠ অ্যালবাম ‘পারফিউম’, যার শেষ গান এবং টাইটেল ট্র্যাক ‘পারফিউম’ এর মিউজিক ভিডিওর শুটিং শেষ হলো সম্প্রতি।

শিরোনামহীন জানায়, ব্যয়বহুল এই মিউজিক ভিডিওর পেছনে তারা বিগত আড়াই বছর পরিশ্রম করেছে এবং এটি সম্ভবত বাংলাদেশের ব্যান্ড মিউজিক ইতিহাসে সর্বোচ্চ বাজেটের মিউজিক ভিডিও। গ্রীক মিথোলজি নিয়ে নির্মিত গানে শিরোনামহীন সদস্যদের সম্পূর্ণ ভিন্ন আউটলুকে উপস্থাপন করা হয়েছে। গল্পের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ করার জন্যই এরকম স্ক্রিনপ্লে করা হয়েছে।

pap-punno

গানটির ভিডিও নির্মাণে সহযোগিতা করেছে বাংলাদেশের প্রখ্যাত শিল্প প্রতিষ্ঠান কে ওয়াই স্টিল। মিউজিক ভিডিওটির ডিরেক্টর জিয়াউর রহমান। প্রচুর স্পেশাল এফেক্ট বহুল এই ভিডিওর ভিএফেক্সের কাজ করছে মিলিয়ন ড্রিমস, প্রোডাকশন করেছে মায়ের দোয়া। গানটির শুটিং করা হয় হেমায়েতপুরে দেশাল এর পরিচালক গোলাম মোস্তফা সবুজ এর বাসভবন ‘সবুজপাতা’য় যা এবছর আর্ক এশিয়া স্থাপত্য এওয়ার্ড বিজয়ী।

Bkash May Banner

শিরোনামহীন এর ব্যান্ড লিডার এবং ভিডিওটির পরিচালক জিয়াউর রহমান জানান, আমরা এই গানে পাশ্চাত্যে উদ্ভূত ‘মি টু’ মুভমেন্টের একটা মেসেজ দিতে চেষ্টা করেছি। ভিক্টিম ব্লেমিং একটি সমসাময়িক সমস্যা এবং আমাদের দেশে ভিক্টিম ব্লেমিং পৃথিবীর বুকে অন্যতম সর্বোচ্চ। ভিক্টিম ব্লেমিং এর জন্মই ছিল গ্রীক মিথোলজিতে বর্ণিত ‘মেডুসা’ কে অন্যায়ের সুবিচার না করে বরং অভিশপ্ত ঘোষণা করার মাধ্যমে। আমরা ইতিহাসে ‘মেডুসা’ ভিলেন হিসেবেই জেনে এসেছি যদিও তিনিই ভিক্টিম ছিলেন। ম্যানহাটন শহরে মুভমেন্টের ফলশ্রুতিতে ইতিমধ্যেই ‘পার্সিউস’ এর হাতে ‘মেডুসা’র মাথা ভাস্কর্য টি ‘মেডুসা’ কে বিজয়ী দেখিয়ে প্রতিস্থাপিত করা হয়েছে। আশা করছি, বাংলাদেশেও ভিক্টিম ব্লেমিং এর অত্যাচার বন্ধ হবে অচিরেই।

‘মেডুসা’ চরিত্রে সারিকা রেশ রহমান, ‘পসেডন’ চরিত্রে অরণ্য রানা, ‘ওরাকল’ চরিত্রে কনক আদিত্য কে দেখা যাবে এই ভিডিওতে।

পারফিউম অ্যালবামের প্রথম গান জাদুকরে অরণ্য রানা জাদুকর চরিত্রটিতে অভিনয় করেছেন। শেষ গান পারফিউমে তাকে দিয়ে শেষ করতে পেরে শিরোনামহীন সদস্যরা আবেগ প্রকাশ করে বলেন, কাকতালীয় হলেও এটি মিরাকুলাস এবং আনন্দের।

শিরোনামহীন সদস্যরা জানান, ‘পারফিউম’ অ্যালবামটির কালেক্টরস এডিশন বাজারজাত করা হবে। ডিজিটাল এ যুগে, শ্রোতারা ডিজিটালি গান শুনতেই অভ্যস্ত এবং গান শোনার যন্ত্র গুলোও সেভাবেই নির্মিত হলেও, কালেকশন এর প্রতি আগ্রহ রুচিশীল, সংবেদনশীল শ্রোতার থাকবেই। আমরা যেহেতু গানের লিরিক, সুর, মান সংবেদনশীল শ্রোতাদের কথা বিবেচনা করেই করি, তাই তাদের কোনোভাবেই হতাশ করতে চাইনা। এ বছর সিলভার জুবিলী ইভেন্টে মুম্বাই অর্কেস্ট্রা’র সাথে বিশাল আয়োজন এর পাশাপাশি আমরা আমাদের ষষ্ঠ অ্যালবাম লঞ্চিং উদযাপন টাও বর্ণাঢ্য আয়োজনে করতে চাই, যার সার্বিক ব্যবস্থাপনা করার জন্য এজেন্সি হিসেবে ‘ড্রিমক্যাস্ট’ আমাদের সাথে চুক্তিবদ্ধ।

বিজ্ঞাপন

Bellow Post-Green View