চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শেষের দিকে অদ্ভুত সব আওয়াজ শুনতেন সুশান্ত!

মনের দিক থেকে ঠিক কতটা ভেঙে পড়লে একজন আত্মহননের রাস্তা বেছে নেয়? সুশান্তের মৃত্যুর পর এমন প্রশ্নই ঘুরছে ভক্তদের মনে। পুলিশ যত তদন্ত করছে, ততই সুশান্তের মানসিক অবসাদগ্রস্ততার বিষয়টি সামনে আসছে।

অবসাদগ্রস্ত সুশান্ত হ্যালুসিনেট করতেন। নানা রকম শব্দ শুনতেন। তার মনে হতো, কেউ তাকে মেরে ফেলতে চাইছে। সুশান্তের মৃত্যুর পর উঠে এসেছে এমনই তথ্য। এবিষয়ে মুখ খুললেন রিহা চক্রবর্তীর ‘জালেবি’ ছবির লেখিকা সুহরিতা সেনগুপ্ত।

বিজ্ঞাপন

সুহরিতা জানিয়েছেন, সুশান্তের সঙ্গে তার আলাপ হয়েছিল মহেশ ভাটের অফিসে। সুশান্ত সেখানে গিয়েছিলেন ‘সড়ক ২’-তে কাজ করার বিষয়ে মহেশ ভাটের সঙ্গে কথা বলতে। তখনই তার সঙ্গে কথা বলে কিছু অস্বাভাবিক বিষয় লক্ষ্য করেছিলেন মহেশ ভাট। তিনি সেইসময় পরিচিতদের বলেছিলেন, বহু বছর আগে পারভিন ববির যেরকম মানসিক সমস্যা তিনি দেখেছিলেন, সুশান্তের মধ্যেও তিনি সেরকমটা লক্ষ্য করেছেন। বছর খানেক আগেই মহেশ ভাট বুঝেছিলেন যে চিকিৎসা ও ওষুধ ছাড়া সুশান্তের বাঁচার উপায় নেই। কারণ, এরকম সমস্যায় ভুগে আত্মহত্যা করেছিলেন পারভিন ববি।

ওষুধ খেতেন না সুশান্ত। সুহরিতা জানিয়েছেন, সুশান্তকে ওষুধ খাওয়ানোর সবরকম চেষ্টা করেছেন সুশান্তের কথিত প্রেমিকা রিহা। একবছর ধরে সবার সাথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছিলেন সুশান্ত। তবুও রিহা সুশান্তের সঙ্গেই ছিলেন। সুশান্ত নানা রকম অদ্ভুত আওয়াজ শুনতে পেতেন, যা রিহা শুনতেন না। তিনি ভাবতেন, কেউ তাকে মেরে ফেলতে চাইছে। একদিন বাড়িতে অনুরাগ কাশ্যপের সিনেমা চলছিল। রিহাও ছিলেন সঙ্গে। এমন সময় সুশান্ত রিহাকে বলেছেন, ‘আমি অনুরাগ কাশ্যপের ছবির প্রস্তাব ফিরিয়েছি। তিনি আমাকে মেরে ফেলবেন।’ এই ঘটনার পর থেকেই থেকেই রিহা সুশান্তের সঙ্গে থাকতে ভয় পেতেন।

সুহরিতা জানান, এই ঘটনার পর মহেশ ভাট রিহাকে বলেছিলেন, সুশান্তের সঙ্গে থাকলে রিহাও মানসিক সুস্থতা হারিয়ে ফেলবেন।

অন্যদিকে এই প্রসঙ্গে প্রশ্ন তুলেছেন বাবুল সুপ্রিয়। ফেসবুকে এক পোস্টে তিনি বলেন, ‘ভাট সাহেবের কথা শুনে আমি অত্যন্ত বিরক্ত। তিনি যখন সবই জানতেন, তাহলে ছেলেটিকে সাহায্য করেননি কেন?’

রবিবার রহস্যজনকভাবে মৃত্যু হয়েছে বলিউডের তারকা অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের। এদিন দুপুরে মুম্বাইয়ের নিজ বাসা থেকে এই অভিনেতার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। সোমবার পুলিশের দেয়া রিপোর্টে বলা হয়েছে, আত্মহত্যা করেছেন এই অভিনেতা। বিগত ছয় মাস ধরে হতাশায় ভুগছিলেন তিনি। কইমই