চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শূন্যরেখায় থাকা রোহিঙ্গাদের মাইকিং করে মিয়ানমারের হুমকি

বান্দরবনের নাইক্ষ্যংছড়ির তমব্রু কোনারপাড়া সীমান্তের শূন্যরেখায় আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের সরে যেতে মাইকিং করে হুমকি দিচ্ছে মিয়ানমারের বিজিপি। এছাড়া সীমান্তের ওপারে সৈন্য মোতায়েন করা হয়েছে। এতে শূন্যরেখায় আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের মাঝে আতংক বিরাজ করছে।

শনিবার সকাল ৮ টা থেকে রোহিঙ্গাদের উদ্দেশ্যে বিজিপি মাইকিং করছে বলে জানান বিজিবির কক্সবাজার ৩৪ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মঞ্জুরুল হাসান খান।

মাইকিংয়ের পাশাপাশি নাইক্ষ্যংছড়ির তমব্রু কোনারপাড়া সীমান্তের বিপরীতে মিয়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিপি সৈন্য সংখ্যা বৃদ্ধি করেছে বলেও জানান তিনি।

লে. কর্নেল মঞ্জুরুল বলেন, শূন্যরেখায় আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের সরে যেতে শনিবার সকাল থেকে নাইক্ষ্যংছড়ির কোনারপাড়া সীমান্তের বিপরীতে মিয়ানমার অভ্যন্তর থেকে বিজিপি মাইকিং শুরু করে। গাছের উপর মাইক বেঁধে ঘণ্টা-দেড়েক পর পর বিজিপি এ মাইকিং করে রোহিঙ্গাদের সরে যাওয়ার নির্দেশনা প্রচার করছে।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, ‘মাইকিং ছাড়াও কোনারপাড়া সীমান্তের শূন্যরেখার বিপরীতে মিয়ানমার অভ্যন্তরে বিজিপি সৈন্যদের টহল জোরদার করতে দেখা গেছে।’

তবে সীমান্তজুড়ে বিজিবি নজরদারী বাড়ানোর পাশাপাশি টহল জোরদার করেছে বলে জানান বিজিবি কর্মকর্তা মঞ্জুরুল।

এঘটনায় রোহিঙ্গাদের মাঝে আতংক বিরাজ করছে।

শূন্যরেখার ক্যাম্পের ব্লক মাঝি মো. আরিফ বলেন, শনিবার সকাল থেকে বিজিপি মাইকিং করে শূন্যরেখা থেকে চলে যেতে হুমকি দিচ্ছে। দ্রুত সরে না গেলে রোহিঙ্গাদের উপর চরম বিপদ আসতে পারে।

‘বিজিপি মাইকিং করে জানিয়েছে, তমব্রু সীমান্তের শূন্যরেখার রোহিঙ্গা ক্যাম্পের জায়গাটি মিয়ানমারের মংডু জেলার অন্তর্ভুক্ত। রাখাইন রাজ্যের মংডু জেলায় এখন দেশটির আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সাধারণ মানুষের চলাচলের উপর কড়া বিধি-নিষেধ আরোপ করেছে। তাই মিয়ানমার অভ্যন্তরের শূন্যরেখা থেকে রোহিঙ্গাদের সরে যাওয়ার হুমকি দিচ্ছে।’

বিজ্ঞাপন