চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শুল্ক ফাঁকি: প্রিজনারের বিরুদ্ধে মামলার সুপারিশ

ইউএনডিপি বাংলাদেশের সাবেক কান্ট্রি ডিরেক্টর স্টিফেন প্রিজনারকে শুল্ক ফাঁকি ও মানি লন্ডারিংয়ের অপরাধে অভিযুক্ত করেছে শুল্ক গোয়েন্দার তদন্ত দল।

বিজ্ঞাপন

তদন্ত রিপোর্টে প্রিজনার শুল্কমুক্ত সুবিধার অপব্যবহারের সাথে জড়িত ছিলেন বলে প্রমাণ পাওয়ার কথা উল্লেখ করা হয়েছে। শুল্ক গোয়েন্দার তদন্ত প্রতিবেদনটি বৃহস্পতিবার জাতীয় রাজস্ব বোর্ডে পাঠানো হয়।

তার বিরুদ্ধে ব্যক্তিগত ব্যবহারের শুল্কমুক্ত সুবিধার গাড়ি অবৈধভাবে নন-প্রিভিলেজড ব্যক্তির কাছে হস্তান্তর এবং এর মাধ্যমে অনৈতিক আর্থিক লেনদেনের অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে।

ব্যক্তিগত লাভের উদ্দেশ্যে গাড়িটির বিক্রয় প্রক্রিয়া ও এ সংক্রান্ত লেনদেনের অর্থ বাংলাদেশের বাইরে অবস্থিত বিদেশি ব্যাংকের মাধ্যমে ব্যবস্থিত হয়েছে। যা মানি লন্ডারিং সংক্রান্ত অপরাধ হিসেবে বিবেচ্য। তার এই কার্যক্রম শুল্ক আইন ও মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ আইনে শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেবে বিবেচিত হওয়ায়  প্রিজনারের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের সুপারিশ করা হয়।

বিজ্ঞাপন

একইসাথে ইউএনডিপি’র নিউইয়র্কস্থ সদর দপ্তরে অভিযোগ বিবরণী প্রেরণেরও সুপারিশ করা হয়। ইউএনডিপি কে তাদের অনুসৃত নিজস্ব সুশাসনের নীতির আলোকে প্রিজনারের বিরুদ্ধে আইনানুগ ও শৃঙ্খলাজনিত ব্যবস্থা নেয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে এই তদন্ত প্রতিবেদনের সুপারিশে।

গত ২৮ নভেম্বর উত্তরার একটি বাড়ি থেকে শুল্ক গোয়েন্দারা  প্রিজনারের ব্যবহৃত শুল্কমুক্ত সুবিধার গাড়িটি আটক করে। এর সূত্র ধরে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর যুগ্ম পরিচালক মোহাম্মদ সফিউর রহমানের নেতৃত্বে তদন্ত কমিটি গঠন করে।

 

Bellow Post-Green View