চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শীর্ষে উঠে ফাইনালে চোখ কুমিল্লার

চট্টগ্রাম থেকে: মুশফিকুর রহিমের চিটাগং ভাইকিংসকে ৭ উইকেটে হারিয়ে বিপিএলে সেরা চার প্রায় নিশ্চিত করে ফেলেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস। ১০ ম্যাচে সাত জয়ে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে তারা। ভিক্টোরিয়ানস অধিনায়ক ইমরুল কায়েস চান, শেষ দুটি ম্যাচেও জয় তুলে টেবিলের এক বা দুই নম্বর দল হয়ে রাউন্ড রবিন লিগ শেষ করতে। সেটি হলে ২০১৫ সালের চ্যাম্পিয়নদের ফাইনাল খেলার সম্ভাবনাও বেড়ে যাবে।

মঙ্গলবার নিজেদের মাঠে টানা তৃতীয় ম্যাচে হার দেখল চিটাগং। তাদের দেয়া ১১৭ রানের মামুলি লক্ষ্য তামিম ইকবালের অপরাজিত ৫৪, শামসুর রহমান শুভর ঝোড়ো ৩৬ রানের ইনিংসে মাত্র ৩ উইকেট হারিয়ে টপকে যায় ইমরুলের দল। বল হাতে রয়ে যায় ২০টি।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

জয়ে ধারাবাহিক হয়ে ওঠা কুমিল্লা এদিন সহজ জয় পাওয়ায় তাদের স্বপ্নের বেলুন আরও বড় হচ্ছে। ইমরুলের কথাতেই পাওয়া গেল সেটির রেশ, ‘এমন জয় পেলে তো দলের জন্য ভালো। সহজে ম্যাচ জিততে পারলে চিন্তা থাকে না। এভাবে ম্যাচ জিততে পারলে ভালো লাগে। আমাদের টিম ধারাবাহিকভাবে ভালো করে যাচ্ছে ব্যাটিং-বোলিংয়ে। সামনে যে ২টা ম্যাচ, তাও আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। যদি এক-দুইয়ের মধ্যে থাকতে পারি, ফাইনালে যাওয়ার জন্য ভালো হবে।’

পয়েন্ট টেবিলের এক ও দুই নম্বর দলের ফাইনাল খেলার সম্ভাবনা থাকে সবচেয়ে বেশি। শীর্ষ দুইয়ের মধ্যে কোয়ালিফায়ার ম্যাচে বিজয়ী দল সরাসরি নাম লেখায় ফাইনালে। হেরে যাওয়া দলের থাকে আরেকটি সুযোগ।

পয়েন্ট টেবিলে তৃতীয় ও চতুর্থ দল হিসেবে যারা সেরা চারে আসেন, তাদের মধ্যে হয় এলিমিনেটর ম্যাচ। যে দল হারবে তারা বাদ পড়ে যাবে। আর যারা জিতবে তারা খেলবে কোয়ালিফায়ার (২) ম্যাচে, কোয়ালিফায়ার-১ এ হেরে যাওয়া দলের সঙ্গে। সেই ম্যাচে যারা জিতবে তারা যাবে ফাইনালে। সেরা চার থেকে দুই ফাইনালিস্ট নির্ধারণের এই প্রক্রিয়ার নাম প্লে-অফ।

Bellow Post-Green View