চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শিশুদের মারাত্মক অপুষ্টিতে বাংলাদেশ ৫ম

বিশ্বজুড়ে পাঁচ বছরের কম বয়সী তিন লাখেরও বেশি শিশু মারাত্মক অপুষ্টিতে ভুগছে। মারাত্মক অপুষ্টিতে ভুগছে এমন দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ৫ম বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের শিশুবিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দক্ষিণ এশিয়া শিশুদের মধ্যে মারাত্মক অপুষ্টির কেন্দ্রস্থল ভারত এবং পাকিস্তান তৃতীয়।  ভারতে অপুষ্টির শিকার ৫৭ লাখ ৭২ হাজার ৪৭২ জন শিশু, পাকিস্তানে অপুষ্টির শিকার ছয় লাখ ৭৮ হাজার ৯২৫ জন।  আর বাংলাদেশে তিন লাখ ২৭ হাজার ৮৫৯ জন শিশু মারাত্মক অপুষ্টিতে ভুগছে।

Reneta June

সাউথ এশিয়ার পরিস্থিতিতে দু’টি শিশুর মধ্যে একজনের ১৮ বয়সের আগে বিয়ে হয়।  আর পাঁচটি শিশুর মধ্যে একজন শিশু ১৮ বছরের আগে বাচ্চা প্রসব করে। এ অঞ্চলটি কিশোরী মেয়েদের এবং গর্ভবতী বা বুকের দুধ খাওয়ানো মহিলাদের মধ্যে কম ওজন এবং রক্তশূন্যতার উচ্চ হার অনেক বেশি।

বিজ্ঞাপন

যুদ্ধ ও মহামারির কারণে বিশ্বে এরই মধ্যে খাদ্যসংকট দেখা দিচ্ছে। অপুষ্টিতে ভোগা শিশুদের রোগ নিরাময়ে ব্যবহৃত বিশেষ পুষ্টিসমৃদ্ধ খাদ্যের কাঁচামালের দামও বেড়েছে। আগামী ছয় মাসের মধ্যে আরো তহবিল না এলে ছয় লাখেরও বেশি শিশু প্রয়োজনীয় চিকিৎসাসেবা থেকে বঞ্চিত হতে পারে।

সংস্থাটির ভাষ্য, মারাত্মক অপুষ্টিতে ভোগা শিশুরা নিজেদের উচ্চতার তুলনায় অত্যন্ত শুকনো হয়। এর ফলে তাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায় এবং এটা অপুষ্টির সবচেয়ে প্রত্যক্ষ ও প্রাণঘাতী ধরন। পাঁচ বছরের কম বয়সী এক কোটি ৩৬ লাখ শিশু এ ধরনের অপুষ্টিতে ভুগছে এবং তাদের প্রতি পাঁচজনে একজনের মৃত্যু হচ্ছে। তবে ইউক্রেন যুদ্ধ ও মহামারির আগেও এ ধরনের অপুষ্টিতে ভোগা প্রতি তিন শিশুর দুটি জীবন রক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় পুষ্টিসমৃদ্ধ খাবার পেত না।

করোনা মহামারি পরবর্তী অর্থনৈতিক সংগ্রাম, ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসন এবং জলবায়ু পরিবর্তনের জেরে বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশে অব্যাহত খরা—এসব বিষয় পরোক্ষভাবে মারাত্মক অপুষ্ট শিশুদের চিকিৎসা ব্যয়ে প্রভাব ফেলতে পারেও বলে জানিয়েছে ইউনিসেফ।

ইউনিসেফের নির্বাহী পরিচালক ক্যাথেরিন রাসেল বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন এবং খাদ্য নিরাপত্তার ওপর বিস্তৃত চাপের পাশাপাশি মূল্যবৃদ্ধি মারাত্মক অপুষ্টিকে ‘বিপর্যয়কর’ মাত্রার দিকে নিয়ে যেতে পারে। প্রতিরোধযোগ্য শিশুমৃত্যু ও অপুষ্টির শিকার শিশুদের এক ভার্চুয়াল বিস্ফোরকে পরিণত হচ্ছে পৃথিবী।