চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শিল্পীদের জন্য প্রস্তুত বাংলাঢোল, কমছে স্টুডিও ভাড়া

করোনাভাইরাসের কারণে প্রায় সবকিছু স্থবির। সামনে ভয়ঙ্কর সংকট দেখছেন সবাই। এই সংকট মোকাবেলা করতে সম্মিলিত প্রচেষ্টার বিকল্প নেই। যার যার জায়গা থেকে ছাড় দিয়ে আবারও ঘুরে দাঁড়াতে হবে আগের মতো।

বাংলাঢোল স্টুডিও কর্তৃপক্ষের একই ভাবনা। আর তেমন ভাবনা থেকেই করোনার এই দুঃসময়ে স্টুডিওতে প্রতিটি কাজে দেওয়া হবে অর্ধেক ছাড়।

বিজ্ঞাপন

বাংলাঢোল স্টুডিও কর্তৃপক্ষ জানায়, বিশ্বব্যাপী প্রতিটি ক্ষেত্রে কোভিড-১৯ এর কারণে বিরূপ প্রভাব পড়তে যাচ্ছে। কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান চাইলে একা কাজ করতে পারে না। সবাই একে অন্যের ওপর নির্ভরশীল। শোবিজ অঙ্গনের মানুষেরাও এর বাইরে নয়। এখানে একটি কাজের সঙ্গে আরেকটি কাজ অঙ্গাঅঙ্গিভাবে জড়িত।

এ কারণেই করোনা-উত্তর সময়ে অডিও রেকর্ডিং, মিক্স-মাস্টারিং, ভিডিও এডিটিং, কালার গ্রেডিং, ডাবিং সুবিধাসহ বাংলাঢোল স্টুডিও বিশ্বমানের সেবার নিশ্চয়তা দিচ্ছে অর্ধেক ছাড়ে।

করোনা ভাইরাস সংক্রমণের আগে সবশেষ বাংলাঢোল স্টুডিওতে নিজেদের জন্য গান তৈরি করেছেন জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী মাকসুদ ও মেহরীন প্রমুখ। প্রথমবারের মতো এখানে কাজ করে তারা সন্তোষ প্রকাশ করেন। বিভিন্ন সময়ে এখানে গান তৈরি করেছেন সৈয়দ আবদুল হাদী, কুমার বিশ্বজিৎ, তপন চৌধুরী, সামিনা চৌধুরী, আসিফ আকবরসহ অনেকেই।

কিছুদিন কার্যক্রম স্থগিত থাকার পর বর্তমানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত আকারে কাজ শুরু হয়েছে মোহাম্মদপুরের নবোদয় হাউজিংয়ে অবস্থিত ২১০০ স্কয়ারফিট আয়তনের বাংলাঢোল স্টুডিওতে।

পঞ্চাশ শতাংশ ছাড় সুবিধা নেওয়ার জন্য আগ্রহীদের বুকিংয়ের প্রয়োজনে বাংলাঢোলের ইমেইল অথবা ফেসবুক পেইজে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।