চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শিল্পায়নের মাধ্যমে কৃষিপণ্য উৎপাদন করলে কর অব্যাহতি

২০২১-২২ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে শিল্পায়নের মাধ্যমে উৎপাদিত কৃষিপণ্যে মূল্য সংযোজনে উদ্যোক্তাকে ১০ বছর মেয়াদে কর অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

এর মধ্যে রয়েছে: ফল প্রক্রিয়াজাতকরণ, শাক-সবজি প্রক্রিয়াজাতকরণ, দুগ্ধ ও দুগ্ধজাত পণ্য উৎপাদন ও শিশু খাদ্য উৎপাদন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

এছাড়া ১০ বছর মেয়াদে কর অব্যাহতি দেওয়ার প্রস্তাবনা রাখা হয়েছে কৃষি যন্ত্রপাতি উৎপাদনকারী উদ্যোক্তাদের জন্য।

প্রস্তবনায় অর্থমন্ত্রী বলেন: এ কথা অনস্বীকার্য যে দেশীয় কৃষিভিত্তিক শিল্পে বাংলাদেশের অপার
সম্ভাবনা রয়েছে। কৃষিজাত পণ্যের আমদানি বিকল্প তৈরীর মাধ্যমে কৃষিভিত্তিক শিল্পের বিকাশ ও কর্মসংস্থান সম্ভব। অধিকন্তু, মুক্ত বাণিজ্যের এ যুগে কৃষি পণ্যে মূল্য সংযােজন ও বৈচিত্র্যকরণের মাধ্যমে বৈশ্বিক রপ্তানি বাণিজ্যের দখল নেয়া সম্ভব। এসব দিক বিবেচনা করে কিছু শর্ত সাপেক্ষে দেশে উৎপাদিত সকল প্রকার ফল, শাক-সবজি প্রসেসিং শিল্প, দুধ ও দুগ্ধজাতপণ্য উৎপাদন, সম্পূর্ণ দেশীয় কৃষি হতে শিশু খাদ্য উৎপাদনকারী শিল্প ও কৃষিযন্ত্র উৎপাদনকারী শিল্পের জন্য দশ বছরের করমুক্ত সুবিধার প্রস্তাব করছি।

এর আগে বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে আগামী ২০২১-২২ অর্থবছরের বাজেট পেশ করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। এবারের বাজেটের পরিমাণ নির্ধারণ করা হয়েছে ৬ লাখ ৩ হাজার ৬৮১ কোট টাকা। যা দেশের মোট জিডিপির ১৭ দশমিক ৪৭ শতাংশ। এই বাজেটে ঘাটতির পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ১৪ হাজার ৬৮১ কোটি টাকা। যা মোট জিডিপির ৬ দশমিক ২ শতাংশ। অর্থাৎ মোট বাজেটের এক তৃতীয়াংশের চেয়ে বেশি ঘাটতি ধরা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন