চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শিক্ষা বাজেটে অতিরিক্ত ৮ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ

আসন্ন ২০১৫-১৬ অর্থবছরে শিক্ষায় মোট বাজেটের আকার ৮ হাজার কোটি টাকার মতো বাড়ছে । শিক্ষা মন্ত্রী এই বৃদ্ধিতে সন্তুষ্ট না হলেও বরাদ্দের দিক থেকে গুরুত্ব দিয়েছেন প্রাথমিক শিক্ষার পাশাপাশি উচ্চ শিক্ষা খাতে গবেষণায়। অবকাঠামো নির্মাণেও রাখা হচ্ছে বড় বরাদ্দ।

আন্তর্জাতিক মান অনুযায়ী শিক্ষায় বরাদ্দ থাকে দেশের মোট জিডিপি’র ৬ শতাংশ বা জাতীয় বাজেটের ২০ শতাংশ পরিমাণ অর্থ। ২০০০ সালে সেনেগালের রাজধানী ডাকার ঘোষণায়ও একথা বলা হয়েছে। তবে বাংলাদেশে এই পরিমাণ অর্থ কোনো বছরই বরাদ্দ দেয়া হয়নি। বাংলাদেশ ওই ঘোষণা সই করলেও শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন, আসছে বাজেটেও শিক্ষা খাতে ওই পরিমাণ বরাদ্দ হচ্ছেনা।

বিজ্ঞাপন

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, দেশে শিক্ষাখাতে চাহিদার তুলনায় অর্থায়ন কম। তবে বরাদ্দ কমেনি বরং বেড়েছে। টাকার পরিমাণ বাড়লেও বরাদ্দের হার বাড়ছে না। এবারও এরকমই হবে। এনিয়ে হতাশ নন বলে জানান মন্ত্রী। তবে চান বরাদ্দ যেন বাড়ে।

বিজ্ঞাপন

আর শিক্ষাবিদরা বলেছেন, আন্তর্জাতিক মান অনুযায়ী বরাদ্দ দেয়া সম্ভব না হলেও বর্তমানের চেয়ে অন্তত দ্বিগুণ বৃদ্ধি করা সম্ভব।

শিক্ষাবিদ প্রফেসর ডক্টর এ কে আজাদ চৌধুরী বলেন, দেশে শিক্ষা বাজেটে বরাদ্দ হয় মাত্র ২ দশমিক ৩ শতাংশ। অথচ ইউনেস্কোর হিসেবে দিতে হয় ৬ শতাংশ। এতোটা না পারলেও অন্তত ৩-৪ শতাংশ শিক্ষা বরাদ্দ দেয়া যেতে পারে।কারণ প্রতিবেশি দেশ ভারতেও এরকমই বরাদ্দ হয়। দেশের অর্থনীতি এখন বেশ সুবিধাজনক অবস্থায় আছে উল্লেখ কওে তিনি শিক্ষাখাতে বরাদ্দ বাড়ানো সম্ভব বলে মনে করেন।

গত ৫ বছরে শিক্ষা খাতে যে পরিমাণ অর্থ বরাদ্দ হয়েছে তা জিডিপির ২ দশমিক ২ শতাংশ। চলমান ষষ্ঠ পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনায় দেশে মানবসম্পদের উন্নয়নকে বেশ গুরুত্ব দিয়ে শিক্ষা খাতে জিডিপির ৪ শতাংশ পরিমাণ অর্থ বরাদ্দের সুপারিশ করা হয়েছে।

Bellow Post-Green View